রোববার, ২৩ জুন, ২০২৪, ঢাকা

আল-আকসায় নিজেদের ধর্মীয় নীতি চাপাতে চায় ইসরায়েল

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ২৪ জানুয়ারি ২০২৩, ০৫:০৯ পিএম

শেয়ার করুন:

আল-আকসায় নিজেদের ধর্মীয় নীতি চাপাতে চায় ইসরায়েল
শেখ রায়েদ সালাহ

আল-আকসা মসজিদে ইসরায়েলিরা নিজেদের তালমুদিক আচার-অনুষ্ঠান চাপিয়ে দিতে চায়। অর্থাৎ, এর মাধ্যমে তারা মুসলিমদের এ পবিত্র মসজিদে ইহুদি ধর্মের বিভিন্ন বিধান প্রতিষ্ঠা করতে চায়। এক প্রভাবশালী ফিলিস্তিনি নেতা এমন মন্তব্য করেছেন।

সোমবার ইসরায়েলে ফিলিস্তিনি ইসলামী আন্দোলনের প্রধান শেখ রায়েদ সালাহ বলেছেন,  আল-আকসা মসজিদে বারবার ইসরায়েলি অনুপ্রবেশ এবং আক্রমণ, মূলত মুসলিম উপাসনালয়ে তালমুদিক (ইহুদি) ধর্মীয় উপস্থিতি তৈরি এবং চাপিয়ে দেওয়ার জন্য দখলদার (জায়নবাদী) রাষ্ট্রের অপপ্রচেষ্টা।


বিজ্ঞাপন


সালাহ সাংবাদিকদের বলেছিলেন, ‘ইসরায়েলিরা কেবল এ পবিত্র স্থানে বারবার অনুপ্রবেশ করে না, শুক্রবারসহ সপ্তাহের সাত দিন তারা এ মসজিদ ইহুদিদের জন্য খোলা রাখার দাবি জানায়। এমনকি মুসলিমদের পবিত্র রমজান মাসেও তারা এ মসজিদের পবিত্রতা লঙ্ঘন করছে।

তিনি জোর দিয়ে বলেন, ইসরায়েলের এসব অপপ্রচেষ্টা ব্যর্থ হবে। আল-আকসা মসজিদ তার সম্মানিত স্থানেই থাকবে। এটা তার নিজস্ব পরিবেশ ও সার্বভৌমত্ব নিয়েই এ ভূমিতে অবস্থান করবে। এছাড়া এ পবিত্র মসজিদটি ফিলিস্তিনি, আরব ও মুসলিমদের অধিকারে থাকবে।

শেখ রায়েদ সালাহ আরও বলেন, আল-আকসায় তাণ্ডব চালানোর ক্ষেত্রে এ ইসরায়েলি প্রচেষ্টা নতুন নয়। এটা ১৯৬৭ সালের প্রথম দিনগুলোতেই শুরু হয়েছিল। শুক্রবার এবং শনিবারের ছুটির দিন ব্যতীত প্রতিদিন সকালে এবং সন্ধ্যায় অবৈধ ইহুদি বসতি স্থাপনকারীরা এ পবিত্র মসজিদটিতে তাণ্ডব চালায়। এসব ইহুদি বসতি স্থাপনকারীরা সর্বদা ভারী অস্ত্রে সজ্জিত ইসরায়েলি সৈন্য বা পুলিশ দ্বারা সুরক্ষিত থেকে এসব অপকর্ম করে।
 
সূত্র : মিডল ইস্ট মনিটর

এমইউ

ঢাকা মেইলের খবর পেতে গুগল নিউজ চ্যানেল ফলো করুন

সর্বশেষ
জনপ্রিয়

সব খবর