নির্জন কারাগারে পাঠানো হলো অং সান সুচিকে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ২৩ জুন ২০২২, ০৪:৩২ পিএম
নির্জন কারাগারে পাঠানো হলো অং সান সুচিকে
মিয়ানমারের ক্ষমতাচ্যুত নেত্রী অং সান সুচিকে নেপিডোর একটি কারাগারে রাখা হয়েছে

মিয়ানমারের ক্ষমতাচ্যুত নেত্রী অং সান সুচিকে নির্জন কারাবাসে পাঠানো হয়েছে। তাকে দেশটির সেনাবাহিনী কর্তৃক নির্মিত রাজধানী নেপিডোর একটি কারাগারে রাখা হয়েছে। এর আগে তাকে গৃহবন্দী অবস্থায় রাখা হয়েছিল। মিয়ানমারের জান্তা সরকারের একজন মুখপাত্র বৃহস্পতিবার এসব তথ্য জানিয়েছেন।

এ বিষয়ে একটি সরকারি বিবৃতিতে সেনাবাহিনীর মুখপাত্র জাও মিন তুন বলেন, ‘বুধবার থেকে ফৌজদারি আইন অনুযায়ী...অং সান সুচিকে নির্জন কারাগারে রাখা হয়েছে।’

এ বিষয়টি সম্পর্কে অবগত একটি সূত্র জানিয়েছে, গত বছর একটি সেনা অভ্যুত্থানে ক্ষমতাচ্যুত হওয়ার পর থেকে সুচিকে নেপিডো শহরের একটি অজ্ঞাত স্থানে গৃহবন্দী করা হয়েছিল। এ সময় ওই নেত্রীর সঙ্গে ছিলেন তার বেশ কয়েকজন গৃহকর্মী ও তার কুকুর।

নোবেল বিজয়ী ৭৭ বছর বয়সী এ জননেত্রী শুধুমাত্র সামরিক সরকারের আদালতে তার বিচারের শুনানিতে অংশ নেওয়ার জন্য ওই গৃহবন্দী থাকার স্থান থেকে বের হতে পারতেন। ওই আদালত তাকে ১৫০ বছরের বেশি জেলের সাজা দিতে পারে বলে শঙ্কা আছে।

বর্তমানে মিয়ানমারের সামরিক সরকারের পক্ষ থেকে সুচির আইনজীবীদের গণমাধ্যমের সাথে কথা বলতে নিষেধ করা হয়েছে এবং সাংবাদিকদেরকে তার বিচারিক প্রক্রিয়া পর্যবেক্ষণে বাধা দেওয়া হচ্ছে।

পূর্ববর্তী জান্তা সরকারের সময়, তিনি মিয়ানমারের বৃহত্তম শহর ইয়াঙ্গুনে তার পারিবারিক প্রাসাদে গৃহবন্দী হয়ে দীর্ঘ সময় কাটিয়েছিলেন।

সুচি ইতোমধ্যেই দুর্নীতি, সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে উসকানি, করোনার বিধি-নিষেধ ভঙ্গ ও একটি টেলিযোগাযোগ আইন ভঙ্গের জন্য দোষী সাব্যস্ত হয়েছেন। আদালত তাকে এখন পর্যন্ত ১১ বছরের সাজা দিয়েছে।

সূত্র : এনডিটিভি

এমইউ