ইরানের ভয়, নাগরিকদের তুরস্ক ছাড়ার নির্দেশ ইসরায়েলের

প্রকাশিত: ১৪ জুন ২০২২, ০২:৫৫ পিএম

শেয়ার করুন:

তুরস্কের অন্যতম শহর ইস্তাম্বুল- ফাইল ফটো

নাগরিকদের তুরস্ক, বিশেষ করে এর অন্যতম শহর ইস্তাম্বুল এড়িয়ে চলার এবং যারা এখনো সেখানে অবস্থান করছে তাদেরকে দ্রুত স্থান ত্যাগ করার নির্দেশ দিয়েছে ইসরায়েল। সোমবার এমন নির্দেশ দিয়েছে ইসরায়েলি প্রশাসন। 

এর আগে তুরস্কে নাগরিকদের ইরান হত্যা করতে পারে আশঙ্কা করে দেশটিতে ভ্রমণ না করার জন্য ৩০ মে নাগরিকদের নির্দেশ দেয় ইসরায়েল। সেই নিদের্শনায় জোরদার করা হয়েছে বলে এক খবরে জানিয়েছে ভয়েস অব আমেরিকা।

এই নির্দেশের কারণ হিসেবে ইসরায়েল বলেছিল, ইরানিদের দ্বারা অবকাশযাপনকারী ইসরায়েলিদের হত্যা বা অপহরণ করার হুমকি রয়েছে।

ইসরায়েলের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ইয়ার ল্যাপিড বলেছেন, ইসরায়েলের নিরাপত্তা বাহিনীর একটি 'বিশাল প্রচেষ্টা' সাম্প্রতিক সপ্তাহগুলোতে 'ইসরায়েলিদের জীবন রক্ষা করেছে ' এবং তিনি তুর্কি সরকারকে তাদের অবদানের জন্য ধন্যবাদ জানিয়েছেন।

এ বিষয়ে তিনি আর বিস্তারিত জানাননি। একজন ইসরায়েলি নিরাপত্তা কর্মকর্তা রয়টার্সকে বলেছেন, তুরস্ক বেশ কয়েকজন সন্দেহভাজন ইরানিকে গ্রেপ্তার করেছে।

২২ মে ইরানের বিপ্লবী গার্ড কোর কর্নেল হাসান সায়াদ খোদাইকে হত্যার জন্য তেহরান ইসরায়েলকে দায়ী করে। মোটরসাইকেলে থাকা দুই ব্যক্তি তাকে তার গাড়িতে গুলি করে হত্যা করে। এর প্রতিশোধের প্রতিশ্রুতি দেয় ইরান।

ইসরায়েল তাদের নীতি অনুসারে গুপ্তহত্যার অভিযোগ স্বীকার বা অস্বীকার করেনি। তারা খোদাইকে বিশ্বব্যাপী তাদের নাগরিকদের বিরুদ্ধে হামলার পরিকল্পনাকারি বলে অভিযুক্ত করেছে।

তুরস্ক ইসরায়েলিদের কাছে একটি জনপ্রিয় পর্যটন গন্তব্য। এক দশকের বেশি টানাপড়েনের পর তুরস্কের সঙ্গে সম্পর্কের উন্নতি হয়েছে ইসরায়েলের। 

একে