তুরস্ককে সিপিইসি প্রকল্পে অন্তর্ভুক্তের প্রস্তাব পাকিস্তানের

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ২২ মে ২০২২, ১০:৪৪ এএম
তুরস্ককে সিপিইসি প্রকল্পে অন্তর্ভুক্তের প্রস্তাব পাকিস্তানের
মিলজেম করভেট

চীন পাকিস্তান অর্থনৈতিক করিডোরে (সিপিইসি) তুরস্ককে অন্তর্ভুক্তের প্রস্তাব দিয়েছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী শেহবাজ শরীফ। শুক্রবার (২০ মে) করাচিতে তুরস্কের ন্যাশনাল শিপ প্রজেক্টের অধীনে একটি জাহাজ উদ্বোধন অনুষ্ঠানে এ প্রস্তাব দিয়েছেন তিনি।

পিএনএস বদর নামক জাহাজটি উদ্ধোধনকালে এক বক্তৃতায় শেহবাজ শরীফ বলেন, ‘‘সিপিইসিকে পাকিস্তান, তুর্কি এবং চীনের একটি ত্রিপক্ষীয় প্রকল্পে পরিণত করা এই অঞ্চলের জন্য উপকারী হবে।’’ খবর আনাদোলু এজেন্সি।

তিনি আরও বলেন, ‘‘প্রতিরক্ষা, পররাষ্ট্র নীতি এবং জনকল্যাণে পাকিস্তান এবং তুর্কির মধ্যে বহুমাত্রিক সহযোগিতা দুই দেশের জনগণের স্বার্থে বন্ধুত্বের নতুন উচ্চতায় পৌঁছেছে।’’ চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং ই ব্রাজিল, রাশিয়া, ভারত, চীন এবং দক্ষিণ আফ্রিকা নিয়ে গঠিত ব্লক ব্রিকস সম্প্রসারণের প্রস্তাব দেওয়ার একদিন পর শেহবাজ শরীফ এ প্রস্তাব উত্থাপন করেন।

পিএনএস বদর জাহাজ নির্মাণে তুরস্কের অর্থায়নকে ‘পুরো পাকিস্তানি জাতি এবং দুই দেশের নৌবাহিনীর জন্য একটি গর্বের মুহূর্ত’ বলে অভিহিত করেন। শরীফ বলেন, পিএনএস বদর চালু করা করাচি বন্দর এবং বন্দর কাসিমে সামুদ্রিক কার্যক্রম বৃদ্ধি করবে, যার ফলে আর্থিক ও শিল্পের অগ্রগতি হবে।

২০১৮ সালের জুলাইয়ে, পাকিস্তান নৌবাহিনী তুরস্কের রাষ্ট্র-চালিত প্রতিরক্ষা সংস্থা এএসএফএটি’র সঙ্গে চারটি মিলজেম-শ্রেণীর জাহাজ অধিগ্রহণের জন্য চুক্তি স্বাক্ষর করে। মিলজেম জাহাজগুলি ৯৯ মিটার লম্বা যার ক্ষমতা ২ হাজার ৪০০ টন। এটি ২৯ নটিক্যাল মাইল গতিতে চলতে পারে। জাহাজটিতে অ্যান্টি-সাবমেরিন কমব্যাট ফ্রিগেট রাডার থেকে লুকিয়ে রাখা যায়।

জাহাজ উদ্বোধন অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন তুরস্কের প্রতিরক্ষামন্ত্রী হুলুসি আকর, নৌবাহিনীর প্রধান অ্যাডমিরাল আমজাদ খান নিয়াজি এবং বিপুল সংখ্যক পাকিস্তানি ও তুর্কি নৌ কর্মকর্তারা।

টিএম