বৃহস্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪, ঢাকা

গাজার হাসপাতালে ইসরায়েলের টানেল পাওয়ার দাবি ‘ডাহা মিথ্যা’

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ২০ নভেম্বর ২০২৩, ০৮:৫২ এএম

শেয়ার করুন:

গাজার হাসপাতালে ইসরায়েলের টানেল পাওয়ার দাবি ‘ডাহা মিথ্যা’

ফিলিস্তিনের গাজায় আল-শিফা হাসপাতালের নিচে মুক্তিকামী সশস্ত্র গোষ্ঠী হামাসের সুরক্ষিত সুড়ঙ্গ পাওয়ার যে দাবি করেছে ইসরায়েল, তা মিথ্যা বলে জানিয়েছে গাজা কর্তৃপক্ষ।

গাজার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের পরিচালক মুনির এল-বুরর্শ ইসরায়েলের দাবি উড়িয়ে দিয়ে বলেছেন, ইসরায়েলি বাহিনী আল-শিফা হাসপাতালে হামাসের একটি টানেল খুঁজে পাওয়ার যে দাবি করেছে তা ‘ডাহা মিথ্যা’।


বিজ্ঞাপন


রোববার এক ভিডিও ফুটেজ প্রকাশ করে ইসরায়েল দাবি করেছে, তারা আল-শিফা হাসপাতালে একটি সুড়ঙ্গের সন্ধান পেয়েছে, যেটি ৫৫ মিটার লম্বা এবং ১০ মিটার গভীর। এই সুড়ঙ্গে বিস্ফোরণরোধী দরজা আছে বলে দাবি করেছে দখলদার ইসরায়েল। এরপরই গাজার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের পরিচালকের পক্ষ থেকে এমন বক্তব্য এলো।

 

আরও পড়ুন

ইসরায়েলি হামলায় গাজায় নিহতের সংখ্যা ১৩ হাজার ছাড়াল

গত ৭ অক্টোবর হামাসের যোদ্ধারা গাজা সংলগ্ন ইসরায়েলের দক্ষিণাঞ্চলে নজিরবিহীন হামলা চালায়। হামলার ব্যাপকতায় হতভম্ব ইসরায়েল হামাসকে নির্মূল করার প্রত্যয় নিয়ে সেইদিন থেকেই গাজায় ব্যাপক হামলা শুরু করে। তারপর থেকে দখলদার ইসরায়েয়ের জঙ্গি বিমানগুলো গাজা ভূখণ্ডে লাগাতার বিমান হামলা চালিয়ে আসছে। এর পাশাপাশি স্থল অভিযানও শুরু করেছে। তাদের বর্বরোচিত হামলায় প্রতিদিন প্রাণ হারাচ্ছেন বহু ফিলিস্তিনের নাগরিক।


বিজ্ঞাপন


 

গত শনিবার (১৮ নভেম্বর) গাজা উপত্যকার উত্তরাঞ্চলে শরণার্থী শিবিরে ইসরায়েলি হামলায় ৮০ জনের বেশি নিহত হয়েছেন। এই হামলায় লক্ষ্যবস্তু হয়েছে শরণার্থী শিবিরে জাতিসংঘ পরিচালিত একটি স্কুলও।

এছাড়া অবরুদ্ধ গাজার সবচেয়ে বড় শরণার্থী শিবির জাবালিয়ায় ইসরায়েলি বিমান বাহিনীর হামলায় আবু হাবাল নামে এক ব্যক্তির পরিবারের ৩২ জন সদস্য নিহত হয়েছেন। তাদের মধ্যে ১৯ শিশুও ছিল।

৭ অক্টোবরের পর থেকে গাজা উপত্যকায় ইসরায়েলি বাহিনীর হামলায় নিহতের সংখ্যা ১৩ হাজার ছাড়িয়েছে। আহত হয়েছেন কমপক্ষে ৩০ হাজার। নিখোঁজের রয়েছেন ছয় হাজারের মতো।

যুদ্ধ শুরুর পর থেকে হামাস গাজাজুড়ে তাদের শত শত কিলোমিটারের অনেক গোপন সুড়ঙ্গ, বাংকার থাকার কথা স্বীকার করলেও হাসপাতালের মতো জায়গায় এমন কোনো সুড়ঙ্গ বা কমান্ড সেন্টার থাকার অভিযোগ বারবারই অস্বীকার করেছে।

এমআর

ঢাকা মেইলের খবর পেতে গুগল নিউজ চ্যানেল ফলো করুন

সর্বশেষ
জনপ্রিয়

সব খবর