বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই, ২০২৪, ঢাকা

মামুনুর রশীদের পাশে অভিনয় শিল্পী সংঘ

বিনোদন ডেস্ক
প্রকাশিত: ৩০ মার্চ ২০২৩, ০১:৫২ পিএম

শেয়ার করুন:

মামুনুর রশীদের পাশে অভিনয় শিল্পী সংঘ

ক’দিন ধরে আলোচনা ও সমালোচনার টেবিলে আছেন গুণী অভিনেতা ও নাট্য ব্যক্তিত্ব মামুনুর রশীদ। দেশের শিল্প সংস্কৃতির দুর্দশার বর্ণনা দিতে গিয়ে এক সাক্ষাৎকারে তিনি উদাহরণ টেনেছেন হিরো আলমের নাম। তার উত্থান রুচির দুর্ভিক্ষের ফসল বলে উল্লেখ করেছেন। এরপর থেকেই সামাজিক মাধ্যমে চলছে শোরগোল। প্রশংসিত হওয়ার পাশাপাশি নিন্দিতও হছেন বেশ। এ অবস্থায় নন্দিত এ অভিনেতার পাশে দাঁড়াল অভিনয় শিল্পী সংঘ।

বিষয়টি নিয়ে বুধবার (২৯ মার্চ) সন্ধ্যায় একটি বিবৃতি দেওয়া হয়েছে সংগঠনটির পক্ষ থেকে। সংগঠনের সভাপতি আহসান হাবীব নাসিম নিজের ফেসবুকে বিবৃতিটি শেয়ার করেন। এরপর সম্মিলিতভাবে ওই বিবৃতি প্রকাশ করে প্রতিবাদ করছেন সংগঠনটির সদস্যরা।


বিজ্ঞাপন


বিবৃতিতে লেখা আছে, ‘অদ্ভুত আঁধার এক পৃথিবীতে আজ! সাম্প্রতিক সময়ে আমাদের অগ্রজ নাট্যজন, একুশে পদক প্রাপ্ত সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব, আমাদের সবার প্রিয় শ্রদ্ধার, ভালোবাসার অভিনয়শিল্পী, অভিনয়শিল্পী সংঘ বাংলাদেশের সম্মানিত উপদেষ্টা জনাব মামুনুর রশীদ একটি সাক্ষাৎকারে সাম্প্রতিক সময়ের আমাদের দেশের শিল্পসাহিত্য, রাজনীতি, সমাজনীতি, অর্থনীতিসহ নানান বিষয়ে বিশদ আলোচনা করেন। বিশেষ করে আমাদের শিল্প সাহিত্য নাটক ও চলচ্চিত্রে সাম্প্রতিক রুচির যে অবনমন, যে ধরনের বিষয়বস্তু প্রাধান্য পাচ্ছে ও আলোচিত হচ্ছে তা নিয়ে তিনি শংকিত হয়ে বলেছেন, আমাদের রুচির দুর্ভিক্ষ চলছে....উদাহরণ হিসেবে প্রতিকী অর্থে একটি নাম বলেছেন। তিনি কোনোভাবেই কোনো ব্যাক্তি কে উদ্দেশ্য করে বলেননি বলেই আমরা বিশ্বাস করি।’

এরপর বলা হয়েছে, ‘বাংলাদেশের সাংস্কৃতিক বিকাশে একজন মামুনুর রশীদের অবদান অবিস্মরণীয় হয়ে থাকবে। তিনি তার সমগ্র জীবন উৎসর্গ করেছেন বাংলাদেশের সাংস্কৃতিক বিকাশে। একটি বিশেষ সম্প্রদায় মামুনুর রশীদের বলা একটি শব্দ, লাইনকে ব্যবহার করে যেভাবে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিদ্বেষ ছড়াচ্ছেন, বিভাজন তৈরি করছেন তা ভীষণ নিন্দনীয় এবং অগ্রহণযোগ্য। যে বা যারা এই কাজটি করছেন তারাই শিল্প ও সংস্কৃতির প্রধান শত্রু। আমরা এর তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি। আমরা মামুনুর রশিদ এর সাথে একমত। রুচি ও মূল্যবোধের ভীষণ অবক্ষয় চলছে। অদ্ভুত আঁধার এক পৃথিবীতে আজ!’

শিল্প সংস্কৃতির দুর্দশা বর্ণনা দিতে গিয়ে মামুনুর রশীদ বলেছিলেন, ‘আমরা একটা রুচির দুর্ভিক্ষের মধ্যে পড়ে গেছি। সেখান থেকে হিরো আলমের মতো একটা লোকের উত্থান হয়েছে। যে উত্থান কুরুচি, কুশিক্ষা ও অপসংস্কৃতির উত্থান। এই উত্থান কীভাবে রোধ করা যাবে, এটা যেমন রাজনৈতিক সমস্যা, তেমনি আমাদের সাংস্কৃতিক সমস্যাও।’

তার বক্তব্যের পর থেকেই শুরু হয় আলোচনা। পাশাপাশি মাথাচাড়া দেয়কটাক্ষ। তারই প্রতিবাদ স্বরূপ এ অভিনেতার পাশে দাঁড়িয়ে নিজেদের অবস্থান পরিষ্কার করল।


বিজ্ঞাপন


আরআর

ঢাকা মেইলের খবর পেতে গুগল নিউজ চ্যানেল ফলো করুন

সর্বশেষ
জনপ্রিয়

সব খবর