পুলিশের সামনেই অভিনেত্রীকে শ্লীলতাহানির হুমকি

বিনোদন ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৯ ডিসেম্বর ২০২২, ০২:৫৪ পিএম
পুলিশের সামনেই অভিনেত্রীকে শ্লীলতাহানির হুমকি

ভারতীয় পুলিশের সামনেই পশ্চিমবঙ্গের অভিনেত্রী নবনীতা দাসকে হত্যা ও ধর্ষণের হুমকি দেওয়া হয়েছে। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে লাইভে এসে এ অভিযোগ করেছেন নবনীতা।

ঘটনার সূত্রপাত গাড়ি দুর্ঘটনাকে কেন্দ্র করে। ভারতের নিমতা থানার কাছাকাছি এলাকা দিয়ে গাড়ি করে যাচ্ছিলেন নবনীতা এবং তার স্বামী ও অভিনেতা জিতু কামাল। এ সময় তাদের গাড়িতে ধাক্কা দেয় একটি পণ্যবাহী গাড়ি। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে দু’পক্ষের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। পরে দুই পক্ষই নিকটস্থ নিমতা থানায় অভিযোগ করতে যায়।

নবনীতার অভিযোগ, গাড়িতে ধাক্কা দেওয়া ব্যক্তিরা থানার সামনেই লাগাতার খুন, ধর্ষণের হুমকি দেয় তাকে। পুলিশ সেখানে উপস্থিত থাকলেও কোনো ভূমিকা নেয়নি। এ ঘটনার পরই লাইভে এসে কেঁদেকেটে নবনীতা জানান, পুলিশ সেখানে থাকা অবস্থায় কেন কোনো পদক্ষেপ নেয়নি। থানার সামনেই ধর্ষণ ও হত্যার হুমকি দেয় অভিযুক্তরা। পুলিশ কোনো ব্যবস্থা নেয়নি তখন। প্রায় দু-আড়াই ঘণ্টা ধরে থানাতেই আটকে থাকেন তারা। পরে এফআইআর নেওয়া হয়। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হবে বলে জানায় পুলিশ।

আজ শুক্রবার ব্যারাকপুর পুলিশের সহকারী পুলিশ কমিশনার সুবীর রায় জানান, এই ঘটনায় মোট চারজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

তিনি বলেন, ‘নবনীতা দেবীর অভিযোগপত্র জমা দেওয়ার পরই তদন্ত শুরু করে দেওয়া হয়েছে। নিমতা থানার ওসি যথেষ্ট তৎপরতার সঙ্গে বিষয়টি সামলেছেন। নিমতা থানার কর্তব্যরত যে এএসআই পরশুরাম বরদলুইয়ের বিরুদ্ধে দুর্ব্যবহারের অভিযোগ আনেন নবনীতা, শিগগিরই তার বিরুদ্ধে বিচারবিভাগীয় তদন্ত শুরু করা হবে।’

এদিকে অভিযুক্তদের গ্রেফতারের খবর শুনে খুশি হয়েছেন জিতু। পুলিশকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন তিনি। এ সময় স্ত্রী নবনীতা সম্পর্কে জিতু জানান, গতকাল বৃহস্পতিবারের ওই ঘটনার পর অসুস্থ হয়ে পড়েছে নবনীতা।

আরআর