পাঠ্যবই নিয়ে মিথ্যাচার প্রশ্রয় দেওয়া হবে না: শিক্ষামন্ত্রী

জেলা প্রতিনিধি
যশোর
প্রকাশিত: ০২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ০৪:০৩ পিএম
পাঠ্যবই নিয়ে মিথ্যাচার প্রশ্রয় দেওয়া হবে না: শিক্ষামন্ত্রী

পাঠ্যবই নিয়ে মিথ্যাচারকে প্রশ্রয় দেওয়া হবে বলে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।

বৃহস্পতিবার (২ ফেব্রুয়ারি) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে যশোর শামস্-উল-হুদা স্টেডিয়ামে ৫১তম শীতকালীন জাতীয় স্কুল মাদরাসা ও কারিগরি শিক্ষা ক্রীড়া প্রতিযোগিতার উদ্বোধনের সময় এ কথা বলেন তিনি।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, দেশে একশ্রেণির অপশক্তি পাঠ্যবইয়ে যে তথ্য নেই, সেই তথ্য আছে বলে বিভ্রান্ত করার অপচেষ্টা চালাচ্ছে। মিথ্যাচারকে প্রশ্রয় দেওয়ার কখনো সুযোগ নেই। আমাদের যদি ভুল থাকে তা স্বীকার করে সংশোধন করব। ইতোমধ্যে যেখানে ভুল দেখা গেছে, তখনই দায়িত্বশীলদের দিয়ে সংশোধন করে দেওয়া হয়েছে। নতুন কারিকুলামের পাঠ্যবইয়ে কোথাও কোথাও ভুল থাকতে পারে, এগুলো সংশোধনের জন্য দুটি কমিটি করে দিয়েছি। ভুলগুলো চিহ্নিত হলে সঙ্গে সঙ্গেই সংশোধন করা হবে।’

education-2অপপ্রচারে কান না দেওয়ার আহ্বান জানিয়ে দীপু মনি বলেন, ‘যেখানে ভুল নেই; অথচ তা নিয়ে মিথ্যাচার করছে একটি অপশক্তি। তারা দেশকে পিছিয়ে নিয়ে যেতে চায়। যারা মিথ্যাচার করছে সেই অপশক্তিকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে প্রতিহত করব।’

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘জাতির পিতার স্বপ্ন ছিল স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ার। তারই কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দীপ্ত পদক্ষেপে এগিয়ে চলছে সেই পথে। আমাদের অনেক লক্ষ্য রয়েছে। ২০৩০ সালে উন্নত সমৃদ্ধ, টেকসই বাংলাদেশ গড়ার। দেশ গড়বার জন্য যেমন সম্ভাবনা রয়েছে; তেমনি চ্যালেঞ্জও রয়েছে। সম্ভাবনাকে সম্ভব করতে সব চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় নিজেদের তৈরি করতে হবে। আর তৈরি হওয়ার জন্য আমাদের শিক্ষার্থীদের যুগোপযোগী শিক্ষায় শিক্ষিত করতে হবে। তাদেরকে সুস্থধারায় সুন্দর মন নিয়ে কর্মের লক্ষে এগিয়ে যেতে পারে। তারই অংশ হিসেবে বিগত শিক্ষাব্যবস্থাকে রুপান্তর করা হয়েছে। নতুন কারিকুলামে শিক্ষাব্যবস্থায় শিক্ষার্থীরা জ্ঞানের দক্ষতা বৃদ্ধি, চিন্তার দক্ষতা, সমসাময়িক বিষয়ে সমাধানের দক্ষতা অর্জন করতে পারবে।’

education-3

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী, যশোর-৩ আসনের সংসদ সদস্য কাজী নাবিল আহমেদ, কারিগরি শিক্ষা অধিদফতরের সিনিয়র সচিব কামাল হোসেন, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের সচিব সোলেমান খান, কারিগরি শিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালক ড. ওমর ফারুক, মাদরাসা শিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালক হাবিবুর রহমান, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষাবোর্ড ঢাকার চেয়ারম্যান প্রফেসর তপন কুমার সরকার, জেলা প্রশাসক তমিজুল ইসলাম খান, পুলিশ সুপার প্রলয় কুমার জোয়ার্দার। মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক নেহাল আহমেদের সভাপতিত্বে স্বাগত বক্তব্য দেন মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড যশোরের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. আহসান হাবিব।

বক্তব্য শেষে অংশগ্রহণকারী শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা অলিম্পিক মশাল প্রজ্জ্বলন, সুশৃঙ্খল প্যারেড, স্কুল শাখার ছাত্রীদের অংশগ্রহণে মনোজ্ঞ মাঠ ডিসপ্লে এবং ক্রীড়া ডিসপ্লে প্রদর্শনী হয়।

প্রতিনিধি/এমআর