ঢাবিতে রাস্তার একপাশে সাদা দল, অন্যপাশে ছাত্রলীগের কর্মসূচি

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ০৮:০২ পিএম
ঢাবিতে রাস্তার একপাশে সাদা দল, অন্যপাশে ছাত্রলীগের কর্মসূচি

নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে নেতাকর্মীদের ওপর পুলিশের হামলা ও গুলিবর্ষণের প্রতিবাদে প্রতীকী অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিএনপিপন্থী শিক্ষকদের সংগঠন সাদা দল। একইসময়ে একই স্থানে আলোকচিত্র প্রদর্শনী করেছে ছাত্রলীগের উপ-সমাজসেবা বিষয়ক সম্পাদক তানভীর হাসান সৈকত।

বৃহস্পতিবার (৮ ডিসেম্বর) দুপুরের দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের অপরাজেয় বাংলার পাদদেশে মৌন অবস্থান কর্মসূচি পালন করে সাদা দল। গতকাল রাতেই সংগঠনটি এ কর্মসূচি ঘোষণা করে। এরপর রাতে একই স্থানে কর্মসূচির ঘোষণা দেন ছাত্রলীগের তানভীর হাসান সৈকত।

সকাল থেকেই সৈকতের অনুসারীরা অপরাজেয় বাংলার বিপরীত পাশে আলোকচিত্র স্থাপন করতে শুরু করেন। আলোকচিত্রে ২০১৪ সালের নির্বাচনের আগে বিএনপির ‘জ্বালাও-পোড়াও কর্মসূচি’ নিয়ে বিভিন্ন আলোকচিত্র তুলে ধরেন।

তানভীর হাসান সৈকত বলেন, ২০১৪ সালে বিএনপির জ্বালাও পোড়াও কর্মসূচিতে কী কী ক্ষতি হয়েছে, তা তুলে ধরতে আমরা অপরাজেয় বাংলার পাদদেশে আলোকচিত্র প্রদর্শনীর ব্যবস্থা করেছি। এতে আমাদের শিক্ষকদেরও মনে পড়বে, বিএনপি তখন কী করেছিল।

বেলা ১২টার কিছু আগে সাদা দলের নেতৃবৃন্দ সেখানে হাজির হন। কিছুক্ষণ পরই তারা নিজেদের প্রতীকী মৌন অবস্থান কর্মসূচি শুরু করেন। ১৫ মিনিট মৌন অবস্থান কর্মসূচি চলে।

অবস্থান কর্মসূচি শেষে সাদা দলের আহ্বায়ক ড. লুৎফর রহমান বলেন, আমরা গতকালের ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানাই। নয়াপল্টনে হামলায় যারা দোষী, আমরা তাদের শাস্তির দাবি জানাই। নিশ্চয়ই সরকার তদন্ত কমিটি গঠন করে তাদের শাস্তির আওতায় আনবেন। এটিই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সাদা দল প্রত্যাশা করে। বিরোধী দলের যেকোনো কর্মসূচিতে সরকার অত্যন্ত গণতান্ত্রিক থাকবেন, আমরা তাদের সহযোগিতা কামনা করি। আমরা আশা করছি, আগামী ১০ তারিখের সমাবেশে সরকার সহযোগিতা করবেন, গণতান্ত্রিক আচরণ করবেন। আমাদের সকলের অংশগ্রহণের মধ্য দিয়ে সে সমাবেশ সফল হবে, সে প্রত্যাশা ব্যক্ত করছি।

ছাত্রলীগের আলোকচিত্রী প্রদর্শনের বিষয়ে অধ্যাপক লুৎফর রহমান বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস গণতান্ত্রিক জায়গা। ১৯৫২ ভাষা আন্দোলন, ১৯৬৬ এর গণঅভ্যুত্থান, ১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধের প্রেক্ষাপটে এ বিশ্ববিদ্যালয়কে দেখতে হবে। ছাত্রলীগ তাদের কর্মসূচি আয়োজন করেছে। আমরা আমাদের মতো মৌন অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছি।

কর্মসূচিতে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- সাদা দলের সাবেক আহ্বায়ক অধ্যাপক এ বি এম ওবায়দুল ইসলাম, অধ্যাপক সিদ্দিকুর রহমান নেজামী, অধ্যাপক জাহাঙ্গীর আলম চৌধুরী, অধ্যাপক আবুল কালাম সরকার প্রমুখ।

ডব্লিউএইচ/এমআর