নোবিপ্রবিতে বিজ্ঞান মেলা, অংশ নিতে পারবেন মাধ্যমিক শিক্ষার্থীরাও

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক
নোবিপ্রবি
প্রকাশিত: ১৯ নভেম্বর ২০২২, ০৩:৪১ পিএম
নোবিপ্রবিতে বিজ্ঞান মেলা, অংশ নিতে পারবেন মাধ্যমিক শিক্ষার্থীরাও

জমকালো আয়োজনে দ্বিতীয়বারের মতো নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (নোবিপ্রবি) বিজ্ঞান মেলার আয়োজন করতে যাচ্ছে নোবিপ্রবি সায়েন্স ক্লাব। বিজ্ঞানের প্রসার ও বিজ্ঞানমনস্ক সমাজ গঠন ছাড়াও শিক্ষার্থীদের বিজ্ঞানচর্চায় আগ্রহী করে তোলার লক্ষ্যে আগামী ৩০ নভেম্বর (বুধবার) বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে এই মেলা অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের পাশাপাশি উচ্চ মাধ্যমিকের শিক্ষার্থীরাও এই বিজ্ঞান মেলায় অংশগ্রহণের সুযোগ পাবেন। মোট সাতটি ইভেন্ট নিয়ে সাজানো হয়েছে এবারের বিজ্ঞান মেলার আসর। ইভেন্টগুলো হলো- সায়েন্টিফিক পোস্টার প্রেজেন্টেশন, তিন মিনিটের রিসার্চ আইডিয়া প্রেজেন্টেশন, প্রোগ্রামিং কন্টেস্ট, সায়েন্টিফিক ফটোগ্রাফি কন্টেস্ট, সায়েন্টিফিক ডিবেট কম্পিটিশন, সায়েন্টিফিক বিজনেস আইডিয়া প্রেজেন্টেশন এবং কলেজ শিক্ষার্থীদের জন্য সায়েন্টিফিক কুইজ কম্পিটিশন।

>> আরও পড়ুন: ৩৩ বছর পর চবির স্মৃতিবিজড়িত হলে তথ্যমন্ত্রী

বিজ্ঞান মেলার পরিসর বাড়াতে এবং পরিচালনায় ইতোমধ্যেই বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে ক্যাম্পাস অ্যাম্বাসেডর নেওয়া হয়েছে। যারা নিজ নিজ ক্যাম্পাসে মেলার প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করছেন। আর অনুষ্ঠান শেষে ক্যাম্পাস অ্যাম্বাসেডররা সার্টিফিকেট, প্রশংসামূলক পোস্ট ছাড়াও অ্যাম্বাসেডরদের মধ্য থেকে একজন সেরা অ্যাম্বাসেডর পাবেন বিশেষ পুরষ্কার।

এবারের বিজ্ঞান মেলায় নোবিপ্রবি সায়েন্স ক্লাবের সহযোগী হিসেবে থাকছে বিশ্ববিদ্যালয়ের একাধিক সংগঠন। এছাড়া অর্গানাইজিং পার্টনার হিসেবে আছে নোবিপ্রবির ডিবেটিং সোসাইটি, আইটি ক্লাব, আইসিই প্রোগ্রামিং ক্লাব, ফটোগ্রাফি ক্লাব, চলো পাল্টাই ফাউন্ডেশন এবং ইইই সংগঠন। আর মিডিয়া পার্টনার হিসেবে থাকছে নোবিপ্রবি সাংবাদিক সমিতি ও নোবিপ্রবি প্রেসক্লাব।

>> আরও পড়ুন: ৫৭ বছরে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়

এ প্রসঙ্গে কথা হলে নোবিপ্রবি সায়েন্স ক্লাবের সভাপতি এস কে ফয়সাল ঢাকা মেইলকে বলেন, ‘একটি জাতির ভবিষ্যৎ উত্তরোত্তর উন্নতি ও অগ্রগতি অনেকাংশেই নির্ভর করে এর ভবিষ্যৎ প্রজন্ম, কিশোর এবং তরুণদের ওপর। একটি জাতি দূরদর্শী হয়ে ওঠার পেছনে মূল চালিকাশক্তি এর তরুণ প্রজন্ম। তাদের অনুসন্ধিৎসু মন সর্বদা খুঁজে বেড়ায় বিভিন্ন প্রশ্নের যৌক্তিক উত্তর, অদম্য কর্মস্পৃহা তাড়িয়ে বেড়ায় তাদের। তাই তরুণ প্রজন্মকে ভবিষ্যতের চাহিদার সঙ্গে তাল মিলিয়ে দক্ষ ও সুশিক্ষিত করে গড়ে তোলার জন্য বিজ্ঞান শিক্ষা ও চর্চার কোনো বিকল্প নেই। এই উদ্দেশ্যকে সামনে রেখেই আমাদের সায়েন্স ফেস্ট এর আয়োজন।’

>> আরও পড়ুন: এ মাসের শেষে এসএসসির ফল প্রকাশ

উল্লেখ্য, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের বিজ্ঞানচর্চায় আগ্রহী করে তুলতে ২০২০ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল নোবিপ্রবি সায়েন্স ক্লাব। প্রতিষ্ঠার পর থেকে সংগঠনটি বছরব্যাপী বিজ্ঞানভিত্তিক নানা আয়োজনের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের বিজ্ঞানচর্চায় উৎসাহ যোগানোসহ অনুপ্রেরণা দিয়ে আসছে। এসব আয়োজনের মধ্যে রয়েছে- সায়েন্স ফেস্টিভ্যাল, সায়েন্টিফিক ওয়ার্কশপ, কুইজ কম্পিটিশন, গবেষণায় হাতেখড়ি এবং পিএইচডি টক। নোবিপ্রবি উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. দিদার-উল-আলম খোদ এই সংগঠনটির প্রধান পৃষ্ঠপোষক হিসেবে রয়েছেন।

/আইএইচ