বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন, ২০২৪, ঢাকা

ব্যাংক আইন পাস হলে সুশাসন নিশ্চিত করা সম্ভব হবে: গভর্নর

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০২ জুন ২০২৩, ০৬:২১ পিএম

শেয়ার করুন:

ব্যাংক আইন পাস হলে সুশাসন নিশ্চিত করা সম্ভব হবে: গভর্নর

‘ব্যাংক কোম্পানি যে এ্যাক্ট সেটার সংশোধনী ক্যাবিনেট অনুমোদন করেছে। অর্থমন্ত্রী সেটা সংসদে পেশ করবেন। সেটার সংশোধন পাশ হলে আমরা ব্যাংকে যে সুশাসন নিশ্চিতের কথা বলি সেটা এবার নিশ্চিত সম্ভব হবে।’

শুক্রবার (০২ জুন) বিকেলে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে বাজেটোত্তর সংবাদ সম্মেলনে এক প্রশ্নের জবাবে বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর আব্দুর রউফ তালুকদার এসব কথা বলেন। 


বিজ্ঞাপন


তিনি বলেন, ব্যাংক কোম্পানি অ্যাক্ট ছাড়াও সিকিউরিড ট্রান্সজেকশন এ্যাক্ট চূড়ান্ত হওয়ার জন্য সেটাও ফাইনাল স্টেজে। এটা ক্যাবিনেট থেকে সংসদে যাবে। এর পাশাপাশি ইনসলভেন্সি এ্যাক্টও চূড়ান্ত পর্যায়ে।

গভর্নর জানান, বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে নিয়ম করা হয়েছে ননপারফর্মিং লোন এর জন্য বেসরকারি ব্যাংকের সুদের হার ৫ শতাংশ এবং সরকারি ব্যাংকের সুদের হার ১০ শতাংশ কমিয়ে আনা হবে। এখানে অনেকগুলো লিগেছি আছে। সরকারি ব্যাংকের মধ্যে যেই সমস্যা আছে তা সমাধান করতে সময় লাগবে। এছাড়াও আপনারা জানেন বেশ কিছু সমস্যাগ্রস্ত ব্যাংক আছে আমরা বিভিন্ন ক্রাইটেরিয়ার মাধ্যমে সেগুলোকে আইডেন্টিফাই করেছি। যেমন তার ননপারফর্মিং লোন কত ও কমিশন ঘাটতি কত আছে এরকম চার-পাঁচটি ক্রাইটেরিয়া। তবে ব্যাংকগুলোকে নিয়ে যে সমস্যা আছে সেগুলো শীগ্রই সমাধান হয়ে যাবে বলে মনে করেন তিনি। 

পাঁচ মাসের রিজার্ভ আছে জানিয়ে আব্দুর রউফ তালুকদার বলেন, আমাদের কারেন্ট অ্যাকাউন্ট ব্যালেন্স হয়ে গেছে। এখন ফিনান্সিয়াল অ্যাকাউন্ট যেটা গত ১৪ বছর ব্যালেন্স ছিল কিন্তু এবছর সেটা প্রথমবারের মতো নেগেটিভ হয়ে গেছে। এখন আমাদের প্রথম কাজ হচ্ছে ফিন্যান্সিয়াল অ্যাকাউন্টটাকে পজেটিভ করা। সেটাকে আমরা পজিটিভ করার জন্য বিভিন্ন ধরনের পদক্ষেপ নিয়েছি। আমাদের ফিনান্সিয়াল অ্যাকাউন্ট পজিটিভ হলে রির্জাভ বাড়তে থাকবে। আগামী কয়েক মাসের মধ্যে রিজার্ভে স্থিতি অবস্থা আসবে এবং রির্জাভ বাড়বে বলেও জানান তিনি। 

এ সময় বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ছাড়াও বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি, শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি এবং স্থানীয় সরকার পরিকল্পনামন্ত্রী তাজুল ইসলাম সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তর দেন। তবে মূল প্রশ্নগুলোর উত্তর দিয়েছেন অর্থমন্ত্রী।


বিজ্ঞাপন


সাংবাদিকরা বাজেট কতটা জনবান্ধব হলো এবং এই বাজেট কতটুকু বাস্তবায়ন সম্ভব তা নিয়েও প্রশ্ন করেছেন। তাদের প্রশ্নের জবাবে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রী এবং আমলারা জানিয়েছেন, এই বাজেট বাস্তবায়ন সম্ভব। 

এমআইকে/এএস

ঢাকা মেইলের খবর পেতে গুগল নিউজ চ্যানেল ফলো করুন

সর্বশেষ
জনপ্রিয়

সব খবর