শুক্রবার, ১ মার্চ, ২০২৪, ঢাকা

পাতে আমিষের টান: কম খরচে কীভাবে মেটাবেন পুষ্টির চাহিদা

মাহফুজ উল্লাহ হিমু
প্রকাশিত: ১৮ মার্চ ২০২৩, ০৯:৪২ এএম

শেয়ার করুন:

পাতে আমিষের টান: কম খরচে কীভাবে মেটাবেন পুষ্টির চাহিদা

রাজধানীর মগবাজারের একটি মেসের বাসিন্দা শফিক। দশ থেকে বারো সদস্যের মেসটিতে প্রতি মাসে গড়ে ২০ থেকে ২২ হাজার টাকার বাজার লাগে। প্রতিদিন দুপুর ও রাতের খাবার রান্না হয় মেসটিতে। খাবারের তালিকায় সপ্তাহে অন্তত তিন দিন ব্রয়লার মুরগি, দুই দিন মাছ এবং একদিন করে ডিম ও সবজি থাকে। আগে সপ্তাহে একদিন গরুর মাংস-পোলাও থাকলেও বাড়তি দামের জন্য তা অনেক আগেই বাদ দেওয়া হয়েছে। এরই মধ্যে সম্প্রতি ব্রয়লার মুরগি ও ডিমের দাম বৃদ্ধিতে বর্তমান খাবারের তালিকা অনুসরণ করতেও হিমশিম খেতে হচ্ছে মেস ম্যানেজারকে।

দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি ও মেস পরিচালনায় হিমশিম পরিস্থিতি তুলে ধরে শফিক বলেন, কয়েক মাস আগেও আমরা প্রতি সপ্তাহের শুক্রবার গরুর মাংস রাখার চেষ্টা করতাম। জিনিসপত্রের দাম বাড়ায় তা বাদ দেওয়া হয়েছে। মেস চলছিল ব্রয়লার মুরগি, মাছ আর ডিম দিয়ে। ইদানীং সেই ব্রয়লার মুরগির দাম আকাশছোঁয়া। আর কিছু টাকা যোগ করলে কক বা সোনালি মুরগিই পাওয়া যাচ্ছে। কিন্তু এ দিয়ে মেস পরিচালনা করা সম্ভব না। একইসঙ্গে পাঙ্গাস, তেলাপিয়ার মতো মাছের দামও অনেক বেড়ে গেছে। এখন সপ্তাহে তিন দিনের জায়গায় একদিনও মুরগি খাওয়া সম্ভব হচ্ছে না। গত ১৭ দিনে মাত্র একদিন মেসে মাংস রান্না হয়েছিল। মাছ দুই দিন থাকলেও বাকি সময়টা ডিম আর সবজির ওপর দিয়ে চালাতে হচ্ছে।


বিজ্ঞাপন


goru

শফিকের মতো রাজধানীসহ সরাদেশের বিভিন্ন মেসের বাসিন্দা এবং মধ্যবিত্ত-নিম্নবিত্ত মানুষের একই অবস্থা। দ্রব্যমূল্যে অস্বাভাবিক ঊর্ধ্বগতি ও টাকা অবমূল্যায়নের জেরে টিকে থাকতে প্রাত্যহিক বাজেট কাটছাঁট করতে হচ্ছে তাদের। ফলে খাবার তালিকা থেকে হারিয়ে যাচ্ছে গরু-খাসির মাংস, ইলিশ মাছ থেকে শুরু করে কম দামি পাজ্ঞাস-তেলাপিয়ার মতো মাছ। এই তালিকায় সর্বশেষ সংযোজন ব্রয়লার মুরগি। ১১০ থেকে ১৪০ টাকার ব্রয়লারের দাম গতমাস থেকে চলতি মাসে বাজারভেদে কেজিতে ২৬০ টাকা পর্যন্ত বিক্রি হয়েছে। ফলে বাধ্য হয়ে অনেক পরিবারকে মাংস খাওয়া বন্ধ বা অথবা পরিমাণ কমাতে হচ্ছে। 

এতে সামগ্রিকভাবে আমিষের ঘাটতি তথা পুষ্টিহীনতা দেখা দেওয়ার শঙ্কা রয়েছে। তবে পুষ্টিবিদদের মতে, পুষ্টিকর খাবার মানেই দামি খাবার, বিষয়টি তা নয়। অল্প খরচেও খাবারে পরিমিত শর্করা, আমিষ, চর্বি ও তেল, ভিটামিন, খনিজ লবণ যোগ করা যায়। এক্ষেত্রে দামি মাছ-মাংসের পরিবর্তে তুলনামূলক কমদামে পাওয়া যায় এমন সব খাবারের সাহায্যেও দৈনিক পুষ্টির চাহিদা পূরণ সম্ভব। বিশেষত আমিষের চাহিদা। কেননা আমিষসমৃদ্ধ প্রাণিজ খাবারের দামই সর্বাধিক বেড়েছে। 

broilar


বিজ্ঞাপন


এ বিষয়ে জানতে চাইলে পুষ্টিবিদ সামিনা জামান কাজরী ঢাকা মেইলকে বলেন, আমাদের শারীরিক সুস্থতার জন্য নানা ধরনের পুষ্টি উপাদান প্রয়োজন। এর মধ্যে অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ উপাদান আমিষ। যা আমরা নানা খাবার থেকে পেয়ে থাকি। এক্ষেত্রে আমিষের প্রধান উৎস হচ্ছে প্রাণিজ আমিষ। এটি আমরা দুধ, ডিম, মাছ, মাংস থেকে পেয়ে থাকি। আমিষের চাহিদা পূরণে এগুলো সবচেয়ে ভালো। কেননা এতে প্রয়োজনীয় সবধরনের অ্যামিনো এসিড থাকে। তবে উদ্ভিজ সোর্স থেকেও আমিষ পাওয়া যায়। যেমন: ডাল, বীজ জাতীয় সবজি এবং মাটির নিচে যে সবজিগুলো থাকে সেগুলোও আমিষের সোর্স। তবে তা প্রাণিজ আমিষের মতো নয়। সম্প্রতিক দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতিতে আমিষ জাতীয় খাদ্য পণ্যের দামই সর্বাধিক বেড়েছে। 

fish

দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি বিবেচনায় কম খরচে আমিষের চাহিদা পূরণ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, দ্রব্যমূল্যের বৃদ্ধির কারণে আমাদের খাবারের যে স্বাভাবিক তালিকা ছিল তাতে ছেদ পড়ছে। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি সমস্যা হচ্ছে আমিষের চাহিদা পূরণে। আমি মনে করি, কোনো পরিবার বা মেসের সদস্যরা হয়ত সপ্তাহের তিন দিন ব্রয়লার মুরগি এবং বাকি দিনগুলোতে তরকারি হিসেবে ডিম বা অন্যান্য খাবার খেত। এখন ব্রয়লারের দাম বাড়ায় তা যদি সামর্থে্যর বাইরে চলে যায় সেক্ষেত্রে ডিমের সাথে মিনিমাইজ করতে হবে। কিন্তু তা এমনভাবে করতে হবে যেন পুষ্টিতে ঘাটতি না থাকে। ডিমের সাথে খাদ্য তালিকায় নিয়মিত ডাল বিচিজাতীয় সবজি (মুগডাল, সিম, বরবটি, কুমড়া ইত্যাদি) রাখতে পারেন। নিত্য খাবার তালিকায় মাটির নিচে থাকা সবজি (মিষ্টি আলু, মুলা, গাজর, কচুর মুখী থাকতে পারে। 

রান্নার রেসিপিতে পরিবর্তন আনার পরামর্শ দিয়ে এই পুষ্টিবিদ বলেন,  যেদিন মুরগি রান্না হবে সেদিনও মুরগির তারকারিটা ভিন্নভাবে তৈরি কারা যেতে পারে। যেন অতিরিক্ত আমিষ পাওয়া যায়। যেমন কেউ ডাল ও মুরগি মিক্সড করে তরকারি রান্না করতে পারে। এতে আমিষের উৎস বাড়বে এবং খাদ্যে আমিষের পরিমাণও বাড়বে। একইভাবে মাছের সাথেও এসব উপাদান যোগ করে আমিষের পরিমাণ বাড়ানো যেতে পারে।

এমএইচ/জেবি

ঢাকা মেইলের খবর পেতে গুগল নিউজ চ্যানেল ফলো করুন

সর্বশেষ
জনপ্রিয়

সব খবর