বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল, ২০২৪, ঢাকা

আইএসপিএবির নতুন কমিটিকে সংবর্ধনা দিল বিসিএস

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০২২, ০৪:৪২ পিএম

শেয়ার করুন:

আইএসপিএবির নতুন কমিটিকে সংবর্ধনা দিল বিসিএস

ইন্টারনেট সার্ভিস প্রোভাইডার্স অ্যাসোশিয়েশন অব বাংলাদেশের (আইএসপিএবি) নব নির্বাচিত কার্যনির্বাহী কমিটিকে সংবর্ধনা দিয়েছে বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতি (বিসিএস)।

১৩ ফেব্রুয়ারি রবিবার সন্ধ্যায় ধানমন্ডির বিসিএস ইনোভেশন সেন্টারে এই সংবর্ধনা অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।


বিজ্ঞাপন


সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে বিসিএস সভাপতি মো. শাহিদ-উল-মুনীর আইএসপিএবি’র নব নির্বাচিত সভাপতি ইমদাদুল হকের হাতে ফুলের শুভেচ্ছা জ্ঞাপন করেন। আইএসপিএবির সাধারণ সম্পাদক নাজমুল করিম ভূঁইয়ার হাতে ফুলের তোড়া দিয়ে শুভেচ্ছা জানান বিসিএস মহাসচিব মুহাম্মদ মনিরুল ইসলাম।

বিসিএস কার্যনির্বাহী কমিটি আইএসপিএবি’র সহসভাপতি আনোয়ারুল আজিম, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ এ কাইয়ুম রাশেদ এবং মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন, কোষাধ্যক্ষ মো. আসাদুজ্জামান (সুজন), পরিচালক সাকিফ আহমেদ, এ.এম কামাল উদ্দিন আহমেদ সেলিম, ফুয়াদ মোহাম্মদ শরফুদ্দিন এবং মো. নাসির উদ্দিনকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান ।

সংবর্ধনা অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন বিসিএস মহাসচিব মুহাম্মদ মনিরুল ইসলাম। অনুষ্ঠানে বিসিএস সভাপতি মো. শাহিদ-উল-মুনীর বলেন, আইএসপিএবি এর সঙ্গে বিসিএস এর সম্পর্ক বরাবরের মতোই আন্তরিক। তথ্যপ্রযুক্তির প্রথম এবং প্রধান সংগঠন হিসেবে বিসিএস এই খাতের সকল সংগঠনকে আন্তরিকতার সঙ্গে শুভেচ্ছা জ্ঞাপন করে। আইএসপিএবিতে এবার যারা নেতৃত্বে এসেছেন, তারা এই খাতকে সমৃদ্ধ করার জন্য নিজেদের যোগ্যতা প্রমাণ করবেন বলেই আমি বিশ্বাস করি। ইন্টারনেট খাতকে এগিয়ে নেয়ার জন্য নব-নির্বাচিত কার্যনির্বাহী কমিটি একাগ্রতার সঙ্গে কাজ করবেন। আইএসপিএবির যেকোন প্রয়োজনে বিসিএস পাশে থাকবে।

আইএসপিএবি সভাপতি ইমদাদুল হক বলেন, বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতি সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করে আমাদের সংবর্ধিত করেছে। এতে আইএসপিএবির সঙ্গে বিসিএস এর সম্পর্কের গভীরতা প্রকাশ পায়। 


বিজ্ঞাপন


বিসিএস এবং আইএসপিএবি এক সুতোয় গাঁথা দুটি সংগঠন। সম্প্রতি বিসিএস ওয়ার্ল্ড কংগ্রেস অব আইটি বাংলাদেশ ২০২১ (ডব্লিউসিআইটি বাংলাদেশ ২০২১) সফলতার সঙ্গে সম্পন্ন  করেছে। করোনাকালীন সময়ে আন্তর্জাতিক এই আড়াম্বরপূর্ণ আয়োজনের জন্য আমি বিসিএস সভাপতি এবং বিসিএস কার্যনির্বাহী কমিটিকে আন্তরিক কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করি। ভবিষ্যতেও বিসিএস নিজেদের এই অগ্রযাত্রা চলমান রাখবে বলেই আমার বিশ্বাস।  আমরা যেহেতু আইএসপিএবি’র দায়িত্ব নিয়েছি সেহেতু এই সংগঠনে কার্যকরী ভূমিকা রেখে তথ্যপ্রযুক্তি খাতের গুরুত্বপূর্ণ অংশ ইন্টারনেটের সহজলভ্যতা নিয়ে আমরা কাজ করবো। ইন্টারনেটের সুফল ছড়িয়ে যাক প্রত্যন্থ গ্রামেও। বিসিএসকে পাশে থাকার জন্য কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করছি।

অনুষ্ঠানে বিসিএস এর প্রাক্তন সভাপতি এস এম ইকবাল, বিভিন্ন উপ কমিটির চেয়ারম্যান এবং সদস্যবৃন্দ ও  আইএসপিএবি’র সদস্যবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

এজেড 

ঢাকা মেইলের খবর পেতে গুগল নিউজ চ্যানেল ফলো করুন

সর্বশেষ
জনপ্রিয়

সব খবর