শনিবার, ২০ এপ্রিল, ২০২৪, ঢাকা

জয়পুরহাটে গৃহবধূর ঝুলন্ত লাশ, স্বামীর বিরুদ্ধে মামলা

জেলা প্রতিনিধি
প্রকাশিত: ২৭ মার্চ ২০২৩, ০৯:০৮ এএম

শেয়ার করুন:

জয়পুরহাটে গৃহবধূর ঝুলন্ত লাশ, স্বামীর বিরুদ্ধে মামলা

জয়পুরহাট সদর উপজেলার দাদরা জন্তিগ্রাম মধ্যপাড়া এলাকায় মিতু আক্তার নামে এক গৃহবধূকে মারপিটের পর শ্বাসরোধে হত্যা করে লাশ ঝুলিয়ে রাখার অভিযোগ উঠেছে স্বামী আব্দুস ছাত্তার ওরফে বোতলের বিরুদ্ধে।

এই ঘটনায় রাতে নিহতের বাবা একই গ্রামের আব্দুল মালেক (৫৫) বাদী হয়ে থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।


বিজ্ঞাপন


রোববার (২৬ মার্চ) উপজেলার দাদরা জন্তিগ্রাম মধ্যপাড়া থেকে মিতু আক্তার (৩২) নামের ওই নারীর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। খবর পেয়ে বেলা ২টার দিকে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতালের মর্গে পাঠায়।

জয়পুরহাট সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সিরাজুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

আব্দুস ছাত্তার একই গ্রামের মৃত মনির উদ্দীনের ছেলে। ঘটনার পর থেকে তিনি পলাতক রয়েছেন।

নিহত গৃহবধূর চাচা বকুল ইসলাম ও স্থানীয়দের উদ্ধৃতি দিয়ে ওসি সিরাজুল ইসলাম জানান, প্রায় ২০ বছর আগে সুক্তাহার গ্রামের আব্দুল মালেকের মেয়ে মিতু আক্তারের সঙ্গে আব্দুস ছাত্তারের বিয়ে হয়। তাদের দুই ছেলে এক মেয়ে রয়েছে। বিয়ের পর থেকে বিভিন্ন সময় মিতুকে যৌতুকের দাবিতে নির্যাতন করতেন তার স্বামী আব্দুস ছাত্তার। এছাড়া কয়েক বছর আগে সাত্তার দ্বিতীয় বিয়ে করেন। এ নিয়েও তাদের মধ্যে বাকবিতণ্ডা লেগে থাকত।


বিজ্ঞাপন


ওসি বলেন, সকালে ছাত্তার তার স্ত্রীকে মারধর ও শ্বাসরোধে হত্যা করে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে মৃতদেহ ঘরের তীরে ঝুলিয়ে রেখে পালিয়ে যান। বিকালে স্থানীয়রা বিষয়টি বুঝতে পেরে পুলিশকে খবর দেন। পরে পুলিশ ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য জয়পুরহাট জেলা আধুনিক হাপাতালে পাঠিয়েছে।

নিহতের শরীরে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে; পলাতক স্বামী আব্দুস ছাত্তার ওরফে বোতলকে গ্রেফতারে পুলিশি অভিযান চলছে বলেও জানান ওসি।

টিবি

ঢাকা মেইলের খবর পেতে গুগল নিউজ চ্যানেল ফলো করুন

সর্বশেষ
জনপ্রিয়

সব খবর