সোমবার, ১৭ জুন, ২০২৪, ঢাকা

প্রেমিকাকে ধর্ষণ, প্রেমিক গ্রেফতার

জেলা প্রতিনিধি
প্রকাশিত: ২৪ মার্চ ২০২৩, ০৪:০৩ পিএম

শেয়ার করুন:

প্রেমিকাকে ধর্ষণ, প্রেমিক গ্রেফতার

নরসিংদীর পলাশে প্রেমিকাকে কলাবাগানে ডেকে নিয়ে পালাক্রমে ধর্ষণের অভিযোগে আজিজুর রহমান মোল্লা (১৮) নামে এক প্রেমিককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (২৩ মার্চ) সকালে উপজেলার চরসিন্দুর ইউনিয়নের চলনা গ্রাম থেকে তাকে গ্রেফতার করে পলাশ থানা পুলিশ।


বিজ্ঞাপন


শুক্রবার (১০ মার্চ) বিকেলে পলাশ থানার চলনা এলাকায় এই ধর্ষণের ঘটনা ঘটে। পরে গত বুধবার নির্যাতিতা কিশোরীর বাবা বাদী হয়ে আজিজুর রহমান মোল্লা ও একই এলাকার কামাল প্রধানের ছেলে ইয়াছিনকে (৩০) আসামি করে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে পলাশ থানায় মামলা করেন।

গ্রেফতার আজিজুর রহমান মোল্লা চরসিন্দুর ইউনিয়নের চলনা মধ্যপাড়া এলাকার রহিম উদ্দিন মোল্লার ছেলে। সে স্থানীয় একটি কলেজের একাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থী। অন্যদিকে নির্যাতিত কিশোরী (১৬) শিবপুরের একটি টেক্সটাইল কারখানার শ্রমিক।

নির্যাতিতা ওই কিশোরীর বাবা বলেন, প্রায় তিনমাস আগে একটি বিয়ের অনুষ্ঠানে তার মেয়ের সঙ্গে আজিজুলের পরিচয় হয়। পরে তাদের দুইজনের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। মাঝে মধ্যে তারা একে অপরের সঙ্গে দেখা করত। গত ১০ মার্চ শুক্রবার বিকেলে তার মেয়ে শিবপুরের বড়ইতলা এলাকায় আজিজুলের সঙ্গে দেখা করতে যায়। এসময় আজিজুল তাকে সিএনজি করে পলাশ থানার চলনা গ্রামে নিয়ে যায়। সেখানে আগে থেকেই একই গ্রামের ইয়াছিন প্রধান নামে অপর এক যুবক অবস্থান করছিল। পরে তারা ওই মেয়েকে মঞ্জু শেখ নামে একজনের কলাক্ষেতের ভেতরে নিয়ে পালাক্রমে ধর্ষণ করে পালিয়ে যায়। লোক লজ্জার ভয়ে ঘটনাটি কাউকে না জানিয়ে বাড়িতে এসে চুপচাপ থাকে মেয়েটি। একপর্যায়ে তার মায়ের কাছে ধর্ষণের ঘটনার বিবরণ জানালে থানায় অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেন নির্যাতিতার বাবা।

পলাশ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আবদুল্লাহ আল মামুন বলেন, মামলা করার পর অভিযান চালিয়ে আজিজুর রহমানকে গ্রেফতার করা হয়। সে একটি কলেজের একাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থী। পরে তাকে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে। অন্য আসামিকে গ্রেফতারে অভিযান চলছে। এছাড়া নির্যাতিত কিশোরীকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।


বিজ্ঞাপন


প্রতিনিধি/এসএস

ঢাকা মেইলের খবর পেতে গুগল নিউজ চ্যানেল ফলো করুন

সর্বশেষ
জনপ্রিয়

সব খবর