ছাত্রীকে ধর্ষণচেষ্টায় গানের শিক্ষকের ৮ বছর কারাদণ্ড 

জেলা প্রতিনিধি
রাঙামাটি
প্রকাশিত: ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ০৩:৪৭ পিএম
ছাত্রীকে ধর্ষণচেষ্টায় গানের শিক্ষকের ৮ বছর কারাদণ্ড 
ছবি : ঢাকা মেইল

রাঙামাটি জেলায় নবম শ্রেণি পড়ুয়া ছাত্রীকে ধর্ষণ চেষ্টার মামলায় রনজিত পাটোয়ারী (৫৫) নামে এক সংগীত শিক্ষককে ৮ বছর সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল। একইসঙ্গে ৫ লাখ টাকা জরিমানা দণ্ড এবং অনাদায়ে আরও দুই বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। 

বৃহস্পতিবার (১ ডিসেম্বর) দুপুরে রাঙামাটির নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক এ ই এম ইসমাইল হোসেন এ রায় দিয়েছেন।
সাজাপ্রাপ্ত রনজিত পাটোয়ারী (৫৫) জেলা শহরের আসামবস্তি বিহার এলাকায় ভাড়া বাসায় থাকতেন। তিনি চট্টগ্রামের মিরসরাইয়ের মঠবাড়িয়ার মৃত জীবন কৃষ্ণ পাটোয়ারীর ছেলে। পেশায় গানের শিক্ষক রনজিত পাটোয়ারী গান শেখানোর পাশাপাশি শিক্ষার্থী পড়াতেন।

মামলার নথি সূত্রে জানা গিয়েছে, ২০১৯ সালের ২৬ এপ্রিল দুপুরে ভিকটিমের বাসায় তাকে ধর্ষণ চেষ্টা করে। এরপর ২০২০ সালের ১১ ফেব্রুয়ারি রনজিত পাটোয়ারীর নিজের বাসাতেই ছাত্রীকে ধর্ষণ চেষ্টা করেন। সবশেষ ২০২১ সালের ১০ মার্চ আসামি ভিকটিমের সঙ্গে একইভাবে অশালীন কাজ করতে থাকেন। পরবর্তীতে ভিকটিমের পরিবার ২০২১ সালের ১২ জুন কোতোয়ালি থানায় মামলা দায়ের করে। এ মামলায় অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় আসামি রনজিত পাটোয়ারীকে ৮ বছর সশ্রম কারাদণ্ড ও ৫ লাখ টাকা জরিমানা দণ্ড এবং অনাদায়ে আরও দুই বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

রায়ে আদালত বলেছেন, ভিকটিমের বাবা-মা ও অভিভাবক আসামিকে বিশ্বাস করে তাদের কন্যা সন্তানের লেখাপড়ার ভার আসামির ওপর অর্পণ করেছিলেন। কিন্তু আসামি উক্ত বিশ্বাস ভঙ্গ করে তিনি নিজে বিবাহিত ও তার বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া কন্যা সন্তান থাকা সত্ত্বেও নিজের কন্যার চেয়ে বয়সে ছোট নবম শ্রেণীতে পড়ুয়া ভিকটিমকে ২ বছর ধরে ক্রমাগত যৌনপীড়ন ও শ্লীলতাহানি করে এসেছেন। 
আসামি একজন সংগীত শিল্পী ও শিক্ষক। আসামি শিক্ষকের মুখোশ পড়ে সংগীতকে তার বিকৃত যৌনাচারের হাতিয়ারে পরিণত করেছেন। 

রাঙামাটি নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিশেষ পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) অ্যাডভোকেট সাইফুল ইসলাম অভি বলেন, আসামির বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ আমরা প্রমাণ করতে পারায় আদালত আসামিকে ৮ বছর সশ্রম কারাদণ্ড এবং ৫ লাখ টাকা জরিমানা আদায় করেছেন।

প্রতিনিধি/এইচই