শনিবার, ২৫ মে, ২০২৪, ঢাকা

বকশীগঞ্জে আ. লীগ সভাপতির বিরুদ্ধে বহিষ্কৃত নেতার মামলা

জেলা প্রতিনিধি
প্রকাশিত: ২৮ অক্টোবর ২০২২, ১১:৫৩ পিএম

শেয়ার করুন:

বকশীগঞ্জে আ. লীগ সভাপতির বিরুদ্ধে বহিষ্কৃত নেতার মামলা

জামালপুরের বকশীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নুর মোহাম্মদ ও তার ছোট ভাই উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি, নিলাক্ষিয়া ইউপি চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম সাত্তারের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাতে বকশীগঞ্জ থানায় এ মামলা করেছেন নিলাক্ষিয়া ইউনিয়ন আ. লীগের বহিষ্কৃত সভাপতি সাইফুল ইসলাম খোকা। মামলায় আরও ৭-৮ জনকে অজ্ঞাতনামা আসামি করা হয়েছে।

মামলা সূত্রে জানা যায়, গত ২৬ অক্টোবর বুধবার নিলাক্ষিয়া ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের কমিটি অনুমোদন নিয়ে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নুর মোহাম্মদ ও নিলাক্ষিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি সাইফুল ইসলাম খোকার মধ্যে বাক বিতন্ডা হয়। এক পর্যায়ে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নুর মোহাম্মদ আ. লীগ নেতা সাইফুল ইসলাম খোকাকে চড় ধাপ্পড় দেন। ওই ঘটনাকে কেন্দ্র করে বকশীগঞ্জ থানায় মামলা করেন বহিষ্কৃত নেতা সাইফুল ইসলাম খোকা।


বিজ্ঞাপন


জানা যায়, গত ২৬ অক্টোবর উপজেলার নিলাক্ষিয়া ইউনিয়নের ৯ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের ত্রি বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সম্মেলনে মুজিবর রহমান সভাপতি ও আবু নেওয়াজ রশিদুজ্জামান তাজুকে সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত করা হয়। সম্মেলনে সমন্বয়ক ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি অধ্যাপক আশরাফ হোসেন তরফদার। সন্ধ্যায় দলীয় কার্যালয়ে ৯ নং ওয়ার্ড কমিটিতে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি সাইফুল ইসলাম খোকাকে স্বাক্ষর দিতে বলেন নুর মোহাম্মদ। সাইফুল ইসলাম খোকা ৯ নং ওয়ার্ড কমিটিতে স্বাক্ষর না দিয়ে তার ছোট ভাই সালেহ আহমেদ ময়নাকে ৪ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি করে কমিটি দিতে বলেন। তার ভাইকে সভাপতি করে ৪নং ওয়ার্ডের কমিটি না দিলে তিনি ৯ নং ওয়ার্ড কমিটিতে স্বাক্ষর করবেন না বলে জানান। এ নিয়ে আ. লীগ সভাপতি নুর মোহাম্মদ ও সাইফুল ইসলাম খোকার মধ্যে বাক বিতন্ডা হয়। এক পর্যায়ে দলীয় কার্যালয় থেকে বের হয়ে যান খোকা। পরে রাত ৮টার দিকে নিলাক্ষিয়া চৌরাস্তা মোড়ে সংবাদ সম্মেলন করেন সাইফুল ইসলাম খোকা। সংবাদ সম্মেলনে সাইফুল ইসলাম খোকা দাবি করেন, দলীয় কার্যালয়ে তাকে মারধর করা হয়েছে। সংবাদ সম্মেলন শেষে খোকার সমর্থকরা চৌরাস্তা মোড়ে বিক্ষোভ করেন এবং উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতির বিরুদ্ধে আপত্তিকর স্লোগান দেন।

এই ঘটনায় রাতেই দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগে সাইফুল ইসলাম খোকাকে সাময়িক বহিস্কার করে উপজেলা আওয়ামীলীগ। বৃহস্পতিবার দুপুরে সাইফুল ইসলাম খোকার শাস্তি দাবি ও তাকে স্থায়ীভাবে বহিস্কারের দাবিতে নিলাক্ষিয়ায় বিক্ষোভ সমাবেশ করে স্থানীয় আওয়ামী লীগ। সমাবেশে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ ও সহযোগী অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা অংশ নেয়।

এ ব্যাপারে সাইফুল ইসলাম খোকা বলেন, দীর্ঘদিন ধরে আওয়ামী লীগের রাজনীতি করি। কমিটি গঠন নিয়ে মারধরের শিকার হয়েছি আমি। তাই আইনের আশ্রয় নিয়েছি। আশা করি ন্যায় বিচার পাব।

এ ব্যাপারে নিলাক্ষিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোফাজ্জল হোসেন মিষ্টার বলেন, উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি নুর মোহাম্মদ একজন পরিচ্ছন্ন রাজনীতিবিদ। নিজের অপকর্ম ধামাচাপা দিতেই আওয়ামীলীগের সভাপতির বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ এনে মামলা করেছেন বহিষ্কৃত নেতা সাইফুল ইসলাম খোকা। সেই সঙ্গে খোকাকে স্থায়ীভাবে বহিস্কারের দাবি জানান তিনি।


বিজ্ঞাপন


এ ব্যাপারে বকশীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম বিজয় বলেন, দলীয় সিদ্ধান্ত উপেক্ষা করে ৯নং ওয়ার্ড কমিটিতে স্বাক্ষর দিতে টালবাহনা করে সাইফুল ইসলাম খোকা। এক পর্যায়ে তার ছোট ভাইকে সভাপতি করে ৪নং ওয়ার্ড কমিটি দিলে ৯ নং ওয়ার্ড কমিটিতে স্বাক্ষর করবে বলে জানায় সে। এই নিয়ে সভাপতি ও তার মধ্যে বাক বিতন্ডা হয়। মারধরের কোনও ঘটনাই ঘটেনি। মিথ্যা মামলা আইনিভাবেই মোকাবেলা করা হবে বলে জানান তিনি।

এ ব্যাপারে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা বকশীগঞ্জ থানার এস আই আবদুল হান্নান বলেন, মামলায় নামীয় দুইজনসহ অজ্ঞাতনামা ৭-৮জনকে আসামি করা হয়েছে। অধিকতর তদন্ত সাপেক্ষে পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

প্রতিনিধি/আরআর

ঢাকা মেইলের খবর পেতে গুগল নিউজ চ্যানেল ফলো করুন

সর্বশেষ
জনপ্রিয়

সব খবর