লক্ষ্মীপুরে জমি নিয়ে বিরোধে ছাত্রলীগ নেতাকে কুপিয়ে জখম 

জেলা প্রতিনিধি
লক্ষ্মীপুর
প্রকাশিত: ২২ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১০:৩১ পিএম
লক্ষ্মীপুরে জমি নিয়ে বিরোধে ছাত্রলীগ নেতাকে কুপিয়ে জখম 

লক্ষ্মীপুরে জমিসংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে হামলা চালিয়ে সাবেক ছাত্রলীগ নেতা আলমগীর হোসেন আলমকে কুপিয়ে জখম করার অভিযোগ ওঠেছে। বৃহস্পতিবার (২২ সেপ্টেম্বর) দুপুরে লক্ষ্মীপুর পৌর শহরের জেবি রোডের বাঞ্চানগর এলাকার হাবিব উল্যা বেপারী বাড়িতে এই ঘটনা ঘটে। ১০ লাখ টাকা চাঁদা না দেওয়ায় প্রতিপক্ষ এই হামলা করেছে বলে জানিয়েছে ভুক্তভোগীর পরিবার।
আলমগীর লক্ষ্মীপুর সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান মেসার্স আয়েশা নুর ট্রেডার্সের স্বত্বাধিকারী। তিনি হাবিব উল্যা বেপারী বাড়ির নুর মোহাম্মদের ছেলে।

ভুক্তভোগীদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, দেড় শতাংশ জমি নিয়ে নুর মোহাম্মদ ও মনির হোসেনদের সঙ্গে বিরোধ চলে আসছে। মনির ওই জমি ক্রয় সূত্রে মালিকানা দাবি করছেন। নুর মোহাম্মদরা ওই জমিতে দোকানঘর নির্মাণ করতে গেলে গত ২১ জুলাই অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট সদর আদালতে মামলা দায়ের করেন। আদালত কাজ বন্ধ রাখতে ১৪৪ ধারা জারি করেন। বুধবার (২১ সেপ্টেম্বর) আদালত ১৪৪ ধারা প্রত্যাহার করে আমাদের কাজ করার অনুমতি দেয়। এতে বৃহস্পতিবার সকালে নুর মোহাম্মদের লোকজন দোকানঘর নির্মাণ কাজ শুরু করে। 

এসময় মনির ১০-১২ জন লোক নিয়ে এসে নুর মোহাম্মদের ছেলে আলমের কাছে ১০ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করেন। ওই টাকা দিতে অস্বীকার করায় মনির লোকজন নিয়ে তার ওপর হামলা করেন। এসময় আলমের মাথায় ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত ও এলোপাতাড়ি কিল-ঘুষি-লাথি মেরে আহত করা হয়। পরে তাকে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আলমের বড় ভাই কামরুল ইসলাম বলেন, আদালতের নির্দেশনা পেয়ে আমরা দোকানঘর নির্মাণ কাজ শুরু করি। ১০ লাখ টাকা চাঁদা চেয়ে মনিররা আমাদের কাজ বন্ধ করতে এসেছিল। চাঁদা দিতে অস্বীকার করায় তারা আমার ভাইকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে আহত করে।

 মনির হোসেন বলেন, চাঁদা চাওয়ার অভিযোগ মিথ্যা। আমাদের জমিতে নুর মোহাম্মদরা জোরপূর্বক দোকানঘর নির্মাণ করছিল। এসময় আমরা বাধা দিয়েছি। আলম কীভাবে আহত হয়েছে তা আমার জানা নেই।

এ ব্যাপারে লক্ষ্মীপুর সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোস্তফা কামাল বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পুলিশ পাঠানো হয়েছে। লিখিত অভিযোগ পেলে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

প্রতিনিধি/জেবি