কুষ্টিয়ায় কোদাল দিয়ে কুপিয়ে ভাবিকে হত্যা, দেবরের যাবজ্জীবন

জেলা প্রতিনিধি
কুষ্টিয়া
প্রকাশিত: ০৪ জুলাই ২০২২, ০৫:২৩ পিএম
কুষ্টিয়ায় কোদাল দিয়ে কুপিয়ে ভাবিকে হত্যা, দেবরের যাবজ্জীবন

তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে কুষ্টিয়ার দৌলপুরে কোদাল দিয়ে কুপিয়ে ভাবিকে হত্যার দায়ে দেবর শুকুর আলী নামের একজনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের রায় দিয়েছেন আদালত। একই সাথে ২০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও ১ বছরের কারাদণ্ডাদেশ প্রদান করা হয়েছে।

সোমবার (৪ জুলাই) বেলা ১১টায় কুষ্টিয়া জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মো. তাজুল ইসলাম এই রায় ঘোষণা করেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন, কুষ্টিয়া জজ আদালতে পিপি অনুপ কুমার নন্দী।

দণ্ডপ্রাপ্ত শুকুর আলী কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার পশ্চি রামকৃষনোপুর গ্রামের মৃত মোজাম্মেল হকের ছেলে। রায় ঘোষণাকালে তিনি আদালতে উপস্থিত ছিলেন, পরে তাকে কড়া পুলিশ পাহারায় জেলা কারাগারে পাঠানো হয়।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, ২০১৩ সালের ২০ মার্চ তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে বাকবিতণ্ডার এক পর্যায়ে আপন বড় ভাই আব্দুল জলিলে স্ত্রী রওশনারাকে কোদাল দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করে শুকুর আলী। এই ঘটনায় ওই দিনই নিহতের বড়ভাই আজগর আলী বাদী হয়ে দৌলতপুর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। দীর্ঘ তদন্ত শেষে ২০১৩ সালের ২ অক্টোবর আদালতে মামলার চূড়ান্ত তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই ফয়সাল হোসেন।
 
প্রতিনিধি/এএ