বরগুনায় হরিণের গোশত-মাথা-পা উদ্ধার

জেলা প্রতিনিধি
বরগুনা
প্রকাশিত: ২৩ জুন ২০২২, ১২:৪০ পিএম
বরগুনায় হরিণের গোশত-মাথা-পা উদ্ধার

বরগুনার পাথরঘাটায় সাত কেজি হরিণের গোশত, ২টি মাথা ও ৮টি পা উদ্ধার করেছে স্থানীয় নুর আলম।

উদ্ধার করা গোশত, মাথা ও পা পরে বনবিভাগের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২৩ জুন) ভোর ৫টার দিকে স্থানীয় নুর আলম হরিণের গোশত, মাথা ও পা উদ্ধার করেন।

পরে সকাল ৭টার দিকে পাথরঘাটা সদর ইউনিয়নের জ্বিনতলা বেড়িবাঁধ এলাকা থেকে নুর আলম বনবিভাগের কাছে হস্তান্তর করেন।

প্রত্যক্ষদর্শী নুর আলম জানান, ফজরের নামাজ পরে জ্বিনতলা বেড়িবাধেঁর পাশে তার মাছের ঘেরে গেলে স্থানীয় হাবিব কাজীর মেয়ে জামাই বেলাল ও এক মোটর সাইকেল ড্রাইভারকে দেখতে পান। প্রথমে তিনি ভাবেন তার ঘেরের মাছ চুরি করছে। তখন বেলালের কাছে গেলে হরিনের মাথা দেখতে পান। বেলাল ও মোটরসাইকেল ড্রাইভার তাকে দেখে বস্তাসহ হরিণের গোস্ত রেখে দ্রুত পালিয়ে যায়। তাৎক্ষণিক স্থানীয়দের খবর দিলে তারা এসে বস্তার মধ্যে প্রায় ১২ কেজির মতো হরিণের গোশত, ২টি মাথা, ৮টি পা ও ২টি হরিণের ভুড়ি দেখতে পান। পরে বন বিভাগকে খবর দিলে তারা এসে এগুলো নিয়ে যান।

তিনি আরও জানান, বেলালের শ্বশুরের একটি রাইফেল আছে তা দিয়ে জামাই, শশুর ও ছেলেরা মিলে প্রায় সময়ই পাশ্ববর্তী সংরক্ষিত হরিণঘাটা বন থেকে হরিণ শিকার করে আসছে। তাদের বিরুদ্ধে কথা বললে হয়রানির শিকার হতে হয়। তাই কেউ তাদের বিরুদ্ধে মুখ খোলে না।

পাথরঘাটা বন বিভাগের রেঞ্জ কর্মকর্তা মো. আবুল কালাম আজাদ জানান, সকাল সাড়ে ৬টার দিকে পাথরঘাটা সদর ইউনিয়নের জ্বিনতলা বেড়িবাঁধের ওপর থেকে হরিণের গোশত, মাথা ও পা উদ্ধার করা হয়েছে। তবে কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি। মামলা প্রস্তুতি চলছে। মামলার পরে আদালতে পাঠানো হবে, আদালত যে নির্দেশনা দিবেন সে অনুযায়ী ব্যাবস্থা নেওয়া হবে।

টিবি