বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল, ২০২৪, ঢাকা

যৌতুকের দাবিতে স্ত্রী নির্যাতন মামলায় ইউসিবি’র অফিসার কারাগারে

জেলা প্রতিনিধি, নওগাঁ
প্রকাশিত: ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ০৮:৫৯ পিএম

শেয়ার করুন:

যৌতুকের দাবিতে স্ত্রী নির্যাতন মামলায় ইউসিবি’র অফিসার কারাগারে

নওগাঁয় যৌতুকের দাবিতে স্ত্রী নির্যাতন মামলায় জামিন নামঞ্জুর করে ইউসিবি’র ক্যাশ অফিসার সিরাজুস সালাহীন (৩০) কারাগারে পাঠিয়েছে আদালত।

সোমবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক মো: ইমতিয়াজ আহমেদের আদালত এই রায় প্রদান করেন।


বিজ্ঞাপন


সিরাজুস সালাহীন নওগাঁ সদর উপজেলার করনোশেন মহল্লার আসাদুল হকের ছেলে। সিরাজুস ইউনাইটেড কর্মাশিয়াল ব্যাংক (ইউসিবি) পিএলসিতে বর্তমানে সিলেট শাখায় সিলেট ক্যাশ অফিসার হিসেবে কর্মরত।

মামলার বাদি চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদরের জৈনক এক ব্যক্তির মেয়ে এবং সিরাজুস সালাহীন এর স্ত্রী। ওই নারী বাবা সাথে বর্তমানে ঢাকার একটি আবাসিক এলাকায় বসবাস করেন।
 
মামলা সূত্রে জানা গেছে, সিরাজুস সালাহীন এর সাথে ওই নারীর বিয়ে হয় ২০২২ সালের ২১ ডিসেম্বর। বিয়ের পরের মাস জানুয়ারিতে রাজশাহীতে কর্মরত থাকার সুবাদে ভাড়া বাসাতে স্ত্রীকে নিয়ে সিরাজুস বসবাস শুরু করেন। এরপর যৌতুক হিসেবে স্ত্রীর বাবার বাড়ি থেকে মোটরসাইকেল, ফ্রিজ, টিভি, এসিসহ অন্যান্য জিনিসপত্র আনতে চাপ দেওয়ার পাশাপাশি মানসিক ও শারীরিকভাবে নির্যাতন করতে থাকে। 

স্ত্রী বাবার বাড়ি থেকে যৌতুক হিসেবে না আনতে মত প্রকাশ করলে গত বছরের ৩০ জুন মারপিট করে ঢাকায় পাঠিয়ে দেয় স্বামী সিরাজুস। এরপর ২ জুলাই ঢাকা মেডিক্যাল হাসপাতালে চিকিৎসা গ্রহণ করেন। পরবর্তীতে স্বামী সিরাজুস পারিবারিকভাবে বিষয়টি মিটমাট করে পুনরায় ঘরসংসার শুরু করেন। এমতাবস্তায় গত আগস্ট মাসে রাজশাহীর ব্যাংক থেকে নওগাঁতে বদলি হয়ে আসেন তিনি।

নওগাঁতে এসে আবারও যৌতুক হিসেবে মোটরসাইকেল, ফ্রিজ, টিভি, এসিসহ অন্যান্য জিনিসপত্র আনতে শারীরিকসহ বিভিন্ন ভাবে নির্যাতন শুরু করেন স্ত্রীর ওপর। গত ২৩ নভেম্বর এক পর্যায়ে ব্যাপক নির্যাতনসহ কানিজের পেটে চাকু দিয়ে হত্যার উদ্দেশে চেষ্টা করেন। এ সময় স্ত্রী হাত দিয়ে নিজেকে রক্ষা করলেও রক্তাক্ত যখন হন তিনি। এমতাবস্তায় বাড়ি থেকে স্ত্রীকে বাড়ি থেকে বের করে দেন স্বামী সিরাজুস সালাহীন। 


বিজ্ঞাপন


এরপর এক আত্মীয়ের বাড়িতে অবস্থান নেন। পরবর্তীতে আত্নীয়ের-স্বজনের সহযোগিতায় রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হয়ে দুই দিন চিকিৎসা গ্রহণ শেষে শেষে গত বছরের ২৭ নভেম্বর নওগাঁ সদর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে স্মামীকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন ওই নারী (স্ত্রী)। 

বাদি স্ত্রীর সাথে সমঝোতা করবে মামলায় উচ্চ আদালত থেকে ১১ ডিসেম্বর মর্মে শর্তে ৬ সপ্তাহের আগাম জামিন পান সিরাজুস সালাহীন। এই সময়ের মধ্যে বাদিদের সাথে সমঝোতা (আপস) না করে নারী ও শিশু দমন ট্রাইবিুনাল নওগাঁ ১ এ আবারো আগাম জামিনের আবেদন করলে ২৫ জানুয়ারি থেকে ১৯ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত আবারো জামিন পান। 

এমতাবস্তায় তার বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলা তুলে নেয়ার জন্য চলতি বছরের ২ ফেব্রুয়ারি ঢাকায় গিয়ে তার স্ত্রীকে হত্যার হুমকি দেন সিরাজুস সালাহীন। হত্যার হুমকি দেয়ার অভিযোগে পরদিন স্বামী সিরাজুস সালাহীনের বিরুদ্ধে ঢাকার ভাটারা থানায় সাধারণ ডায়রি করেন স্ত্রী।

ওই নারীর বাবা জানান, যৌতুকের দাবিতে স্ত্রী নির্যাতনকারীর বিরুদ্ধে সর্বোচ্চ আইনানুগ ব্যবস্থা পাবেন বলে আশা করেন। এছাড়া ব্যাংকের কর্তৃপক্ষের কাছে তার বিরুদ্ধে দ্রুত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার দাবি জানান।

বাদির পক্ষে আইনজীবী এসএম মূর্তেজা মাহাতাব উদ্দিন জানান, আজ সোমবার মামলার অস্থায়ী জামিন শুনানির নির্ধারিত দিনে বিজ্ঞ আদালতে আবারও জামিন আবেদন করেন সিরাজুস সালাহীন। সিরাজুস সালাহীনের জামিন না মঞ্জুর করে বিজ্ঞ আদালেতের বিচারক তাকে কারাগারে প্রেরণ করেন।
 
তবে এ বিষয়ে বিবাদী সিরাজুস সালাহীনের আইনজীবীসহ পরিবারের কারো সাথে যোগাযোগ করা সম্ভব না হওয়ায় কোন বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

প্রতিনিধি/একেবি

ঢাকা মেইলের খবর পেতে গুগল নিউজ চ্যানেল ফলো করুন

সর্বশেষ
জনপ্রিয়

সব খবর