সোমবার, ৪ মার্চ, ২০২৪, ঢাকা

যশোরে মাদক মামলায় তিন কারবারির যাবজ্জীবন

জেলা প্রতিনিধি, যশোর
প্রকাশিত: ১২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১১:৪৩ পিএম

শেয়ার করুন:

ফেনসিডিল মামলায় শার্শার হাসান আলীর ১০ বছর কারাদণ্ড

যশোরের বেনাপোলে মাদক মামলায় তিন কারবারিকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় বাকি সাত আসামিকে খালাস দেওয়া হয়েছে।

সোমবার (১২ ফেব্রুয়ারি) অতিরিক্ত দায়রা জজ ফারজানা ইয়াসমিন এ রায় দেন।


বিজ্ঞাপন


সাজাপ্রাপ্ত আসামিরা হলো-  বেনাপোলের সাদীপুর গ্রামের মৃত সোবহান গাজীর ছেলে হাবিবুর রহমান হবি, মৃত আহম্মদ আলী বিশ্বাসের ছেলে শওকত হোসেন ও ফজের আলীর ছেলে আকবর আলী ওরফে আকবর।

আদালতের অতিরিক্তি পিপি অ্যাডভোকেট আসাদুজ্জামান জানান, ২০১৬ সালের ২ ডিসেম্বর যশোরের ডিবি পুলিশ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বেনাপোলের সাদীপুর গ্রামের আকবরের বাড়িতে অভিযান চালায়। এ সময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে পালিয়ে যাওয়ার সময় হাবিবুর রহমান ও শওকত হোসেনকে আটক করা হয়। তাদের স্বীকারোক্তিতে আকবর আলীর বিল্ডিংয়ের দক্ষিণ কোনার রুমে তল্লাশি করে কার্টনের ভিতর থেকে দেড় কেজি হেরোইন উদ্ধার করা হয়।

এ ঘটনায় আটক আসামিদের দেওয়া তথ্যেরে ভিত্তিতে ১৩ জনের নাম উল্লেখ করে মাদক নিয়ন্ত্রণ আইনে বেনাপোল পোর্ট থানায় মামলা করেন ডিবির এসআই শহিদুল ইসলাম। তদন্ত শেষে ১০ জনকে অভিযুক্ত ও বিভিন্ন সময় আটকসহ অপর ১০ জনের অব্যাহতি চেয়ে আদালতে চার্জশিট জমা দেন তদন্তকারী কর্মকর্তা ডিবির এসআই শরিফুল ইসলাম।

এ মামলার দীর্ঘ সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে আসামি হাবিবুর রহমান, শওকত হোসেন ও আকবার আলীর বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় বিচারক তাদের প্রত্যেককে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়। একই সঙ্গে তাদের প্রত্যেককে পাঁচ হাজার টাকা করে জরিমানা অনাদায়ে আরও ২ মাস করে কারাদণ্ডের আদেশ দেন।


বিজ্ঞাপন


ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় অপর আসামি আব্দুল হামিদ, বেবি, রুমা বেগম, আসমা খাতুন, সালাম, আতিয়ার ও আলালকে খালাস দেওয়া হয়েছে। সাজাপ্রাপ্ত হাবিবুর রহমান হবি, শতওক হোসেন ও আকবর আলী কারাগারে আটক আছে।

প্রতিনিধি/ এজে

ঢাকা মেইলের খবর পেতে গুগল নিউজ চ্যানেল ফলো করুন

সর্বশেষ
জনপ্রিয়

সব খবর