শনিবার, ২৫ মে, ২০২৪, ঢাকা

মতিয়ার আসনে জামানত হারালেন সব প্রার্থী

জেলা প্রতিনিধি, শেরপুর
প্রকাশিত: ০৯ জানুয়ারি ২০২৪, ০৮:০৫ পিএম

শেয়ার করুন:

মতিয়ার আসনে জামানত হারালেন সব প্রার্থী

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে শেরপুর-২ (নকলা- নালিতাবাড়ী) আসনে বেগম মতিয়া চৌধুরীর সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন দুই প্রার্থী। প্রদত্ত ভোটের মধ্যে মতিয়া চৌধুরী একাই পেয়েছেন ৫৩ দশমিক ৪৮ শতাংশ। তাই মতিয়া চৌধুরী ছাড়া বাকি প্রার্থীরা জামানত হারিয়েছেন।

আর এবার বিজয়ের মধ্য দিয়ে ডাবল হ্যাটট্রিক করেন আওয়ামী লীগের এ হেভিওয়েট নেতা।


বিজ্ঞাপন


বেগম মতিয়া চৌধুরীর এ আসনে নির্বাচনে অংশ নেন জাসদ মনোনীত প্রার্থী লাল মোহাম্মদ শাহজাহান ও স্বতন্ত্র প্রার্থী সৈয়দ মুহাম্মদ সাঈদ আঙ্গুর।

নির্বাচন কমিশনের আইন অনুসারে, নির্বাচনে অংশগ্রহণকারী প্রত্যেক প্রার্থীকে ২৫ হাজার টাকা জামানত হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার সময় ব্যাংকে জমা রাখতে হয়। কোনো আসনে প্রাপ্ত ভোটের আট ভাগের এক ভাগের চেয়েও কম ভোট পেলে সংশ্লিষ্ট প্রার্থীদের জামানত হিসেবে রাখা টাকা বাজেয়াপ্ত হয়ে যায়।

জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তার তথ্য অনুসারে, এ আসনে মোট ভোটার ৪ লাখ ১১ হাজার ৬৯৫ জন। এদের মধ্যে ভোট প্রয়োগ করেছেন ২ লাখ ৩০ হাজার ৬০ জন। প্রদত্ত ভোটের শতকরা হার ৫৫ দশমিক ৮৯ শতাংশ। এ আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী বেগম মতিয়া চৌধুরী বিজয়ী হয়েছেন। তার প্রাপ্ত ভোট ২ লাখ ২০ হাজার ১৪১ ভোট। প্রদত্ত ভোটের মধ্য মতিয়া চৌধুরী পেয়েছেন ৫৩ দশমিক ৪৮ শতাংশ। মতিয়া চৌধুরী ছাড়া বাকি সব প্রার্থীই জামানত হারিয়েছেন।

জামানত হারানো প্রার্থীরা হলেন- জাসদ মনোনীত মশাল প্রতীকের প্রার্থী লাল মোহাম্মদ শাহজাহান লাল। যিনি মোট ভোট পেয়েছেন ৪ হাজার ৫৭৬ ভোট, প্রদত্ত ভোটের মধ্য তিনি পেয়েছেন ১ দশমিক ১২ শতাংশ। আরেক প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী ঈগল প্রতীকের সৈয়দ মুহাম্মদ সাঈদ আঙ্গুর। যিনি মোট ভোট পেয়েছেন ৫ হাজার ৩৪২ ভোট, প্রদত্ত ভোটের মধ্যে তিনি পেয়েছেন ১ দশমিক ২০ শতাংশ।


বিজ্ঞাপন


প্রতিনিধি/এসএস

ঢাকা মেইলের খবর পেতে গুগল নিউজ চ্যানেল ফলো করুন

সর্বশেষ
জনপ্রিয়

সব খবর