বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই, ২০২৪, ঢাকা

রংপুরের ৬ আসনে নৌকার টিকিট চান ৩৩ জন

রেজাউল করিম জীবন, রংপুর
প্রকাশিত: ২১ নভেম্বর ২০২৩, ১০:৪২ এএম

শেয়ার করুন:

রংপুরের ৬ আসনে নৌকার টিকিট চান ৩৩ জন

এক সময়ের জাতীয় পার্টির দুর্গ হিসেবে পরিচিত রংপুর জেলার ৬টি আসনের ৪টি আসনেই এখন আওয়ামী লীগের দখলে। তাই দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সব আসন দখলে নিতে এবারে নৌকার টিকিট পেতে দলীয় মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন ৩৩ জন। এর মধ্যে প্রধানমন্ত্রীর শ্বশুরবাড়ি পীরগঞ্জ ৬ সংসদীয় আসন থেকে প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে মনোনয়ন ফরম তুলেছেন নেতাকর্মীরা।

শনিবার (১৮ নভেম্বর) থেকে সোমবার (২০ নভেম্বর) পর্যন্ত এই তিনদিনে ৩৩ জন দলীয় মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেন। যারা ইতোমধ্যে দলীয় মনোনয়নের জন্য মনোনয়নপত্র তুলেছেন, তারা সবাই আশাবাদী।


বিজ্ঞাপন


গংগাচড়া-১ আসনে নৌকার টিকেটের জন্য দলীয় মনোনয়ন নিয়েছেন ৬ জন। এরমধ্যে রংপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. রেজাউল করিম রাজু, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান বাবলু, বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি রুহুল আমিন, কেন্দ্রীয় যুবলীগের সদস্য রবিউল ইসলাম রেজভি, সাবেক ছাত্রনেতা কামাল মো. নাসের, গজঘণ্টা ইউপি চেয়ারম্যান লিয়াকত আলী। যদিও জোটবদ্ধ নির্বাচন করলে ছেড়ে দিতে হবে জাতীয় পার্টিকে এই আসনটি।

বদরগঞ্জ-তারাগঞ্জ ২ আসনে এবারে নৌকার টিকিট প্রত্যাশী ৪ জন দলীয় মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন। মনোনয়ন ফরম নিয়েছেন যারা, বর্তমান সংসদ সদস্য আবুল কালাম আহসানুল হক চৌধুরী ডিউক, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা রাফিউর রহমান রাফি, কেন্দ্রীয় সাবেক ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি ও জেলা আওয়ামীলীগের আহবায়ক কমিটির সদস্য সুমনা আকতার লিলি, কেন্দ্রীয় কৃষকলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বিশ্বনাথ সরকার বিটু।

রংপুর সদর ৩ আসনে সবচেয়ে বেশি মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন। এই আসনে নৌকা প্রতীক চান ১০ জন। এ সংখ্যা আরো বাড়তে পারে বলে জানা গেছে। ইতোমধ্যে যারা মনোনয়ন ফরম নিয়েছেন, তারা হলেন—কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সদস্য ও সাবেক এমপি অ্যাড. হোসনে আরা লুৎফা ডালিয়া, মহানগর আওয়ামী লীগের আহবায়ক ডা. দেলোয়ার হোসেন, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহবায়ক অধ্যাপক মাজেদ আলী বাবুল, মহানগর আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক তুষার কান্তি মন্ডল, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান নাসিমা জামান ববি, মেট্রোপলিটন চেম্বারের প্রেসিডেন্ট ও মহানগর আওয়ামী লীগের সাবেক সহ-সভাপতি রেজাউল ইসলাম মিলন, মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি আতাউর জামান বাবু, রংপুর মহানগর আওয়ামী লীগের আহবায়ক কমিটির সদস্য গোলাম রব্বানী বিপ্লব, রংপুরের পিপি অ্যাডভোকেট আব্দুল মালেক, মহানগর আওয়ামী লীগের সদস্য নবীউল্লাহ পান্না।

কাউনিয়া-পীরগাছা ৪ আসনে মনোনয়ন ফরম নিয়েছেন বর্তমান সংসদ সদস্য ও বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি, রংপুর জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহবায়ক অধ্যাপক মাজেদ আলী বাবুল, কাউনিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান আনোয়ারুল ইসলাম মায়া, আইনজীবী রফিক হাসনাইন, কেন্দ্রীয় যুবলীগের সহ সম্পাদক ও ছাত্রলীগের সাবেক ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মনোয়ারুল ইসলাম মাসুদ, সাবেক ছাত্রনেতা ব্যারিস্টার আনোয়ার হোসেন।


বিজ্ঞাপন


মিঠাপুকুর ৫ আসনে এবারে নির্বাচন করবেন না বলে জানিয়ে দিয়েছেন বর্তমান সংসদ সদস্য ও আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কোষাধ্যক্ষ এইচ এন আশিকুর রহমান। তিনি ছেলের জন্য মনোনয়ন প্রত্যাশা করেন। মিঠাপুকুর আসনে নৌকার মাঝি হতে মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন মিঠাপুকুর উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহবায়ক রাশেক রহমান, জেলা আওয়ামী লীগের আহবায়ক কমিটির সদস্য ও সাবেক ছাত্রনেতা মোতাহার হোসেন মন্ডল মওলা, উপজেলা চেয়ারম্যান জাকির হোসেন।

পীরগঞ্জ ৬ আসনটি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার শ্বশুরবাড়ি হওয়ায় একরকম মনোনয়ন দৌড়ে চুড়ান্ত জাতীয় সংসদের স্পীকার ও বর্তমান সংসদ সদস্য ড. শিরিন শারমিন চৌধুরী। যদিও এই আসন থেকে প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে মনোনয়ন ফরম তুলেছেন রংপুর জেলা আওয়ামী লীগের আহবায়ক শাহাদত হোসেন বকুল। এছাড়াও মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন বিশিষ্ট শিল্পপতি সিরাজুল ইসলাম, সাবেক সংসদ সদস্য ও উপজেলা চেয়ারম্যান নুর মোহাম্মদ মন্ডল। এছাড়াও শেষদিনে দলীয় মনোনয়নের মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করতে পারেন সাবেক সংসদ সদস্য বীরমুক্তিযোদ্ধা আবুল কালাম আজাাদ বলে জানা গেছে।

তবে এবারে রংপুর জেলার ৬ সংসদীয় আসনের মধ্যে কমপক্ষে তিনটি আসন ফিরে পেতে চায় জাতীয় পার্টি। সবঠিকঠাক থাকলে গংগাচড়া-১, বদরগঞ্জ-তারাগঞ্জ-২ এবং রংপুর সদর-৩ ছেড়ে দিতে পারে বলে বিভিন্ন সূত্রে জানা গেছে।

টিবি

ঢাকা মেইলের খবর পেতে গুগল নিউজ চ্যানেল ফলো করুন

সর্বশেষ
জনপ্রিয়

সব খবর