১৬০ সিসির নতুন পালসার এলো

অটোমোবাইল ডেস্ক
প্রকাশিত: ২৩ জুন ২০২২, ০৯:০১ এএম
১৬০ সিসির নতুন পালসার এলো

সব জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে অবশেষে বাজারে এলো নতুন পালসার। বুধবার ভারতে পালসার এন১৬০ উন্মুক্ত করলো বাজাজ। সিঙ্গেল ও ডুয়েল চ্যানেল এবিএস ভার্সনে বাইকটি কেনা যাবে। 
 
পালসার ২৫০ সিরিজ থেকে এই মোটরসাইকেলের ডিজাইন অনুপ্রাণিত। 

নতুন মোটরসাইকেলে রয়েছে ১৬৪.৮২ সিসির অয়েল কুলড ইঞ্জিন। এই ইঞ্জিনে ১৬ পিএস শক্তি ও ১৪.৬৫ নিউটন মিটার টর্ক পাওয়া যাবে।

pulsarভারতে বাজাজ পালসার এন১৬০ দাম শুরু ১ লাখ ২২ হাজার ৮৫৪ রুপি থেকে। বেস ভেরিয়েন্টে থাকছে সিঙ্গেল চ্যানেল এবিএস।  ডুয়েল চ্যানেল এবিএস ভার্সনের দাম ১ লাখ ২৭ হাজার ৮৫২ রুপি।

সিঙ্গেল থেকে ডুয়েল চ্যানেল এবিএস ভেরিয়েন্ট কিনতে ৪৯৯৯ রুপি বেশি খরচ করতে হবে। 

বাইকটি হিরো এক্সট্রিম ১৬০আর, ইয়ামাহা এফজেড-এস ভার্সন ৩.০, সুজুকি জিক্সার, হোন্ডা এক্স-ব্লেড, টিভিএস অ্যাপাচি আরটিআর ১৬০ ভার্সন ফোরের সঙ্গে প্রতিযোগিতা করবে। 

pulsarনতুন মডেলে কী কী থাকছে?

নতুন বাইকে ২৫০ সিসির পালসারে হেডল্যাম্প দেওয়া হয়েছে। এই বাইকে প্রোজেক্টর হেডল্যাম্প ব্যবহৃত হয়েছে। সঙ্গে থাকছে এলইডি ডিআরএল। ইন্ডিকেটরে বাল্ব ব্যবহার হলেও টেল লাইটে এলইডি দেওয়া হয়েছে। 

আগের মতোই এই মডেলেও থাকছে স্প্লিট সিট। আপরাইট আর্গোনমিক্সের জন্য এই বাইকে সিঙ্গেল পিস হ্যান্ডেলবার ব্যবহার হয়েছে।

পালসার ১৬০ মডেল থেকে এন১৬০ মডেলের ইঞ্জিনে কম শক্তি মিলবে। যদিও টর্কের হিসাবে এগিয়ে থাকবে নতুন মডেল। যা এই বাইকের রাইডিং অভিজ্ঞতাকে আরও আকর্ষণীয় করে তুলবে।

pulsarপালসার ২৫০ মডেলে যে চ্যাসিস দেওয়া হয়েছে সেই একই চ্যাসিস ব্যবহার করা হয়েছে নতুন মডেলে।

সিঙ্গেল চ্যানেল এবিএস ভার্সনে ৩১ মিলিমিটার টেলিস্কোপিক ফর্ক এবং ডুয়েল চ্যানেল এবিএস ভার্সনে ৩৭ মিলিমিটার টেলিস্কোপিক ফর্ক দেওয়া হয়েছে। উভয় ভার্সনের পেছনে থাকছে মনোশক অ্যাবসর্ভার।

ডুয়েল চ্যানেল এবিএস ভার্সনের সামনের চাকায় ৩০০ মিলিমিটার ডিস্ক ব্রেক। সিঙ্গেল চ্যানেল এবিএস ভার্সনের সামনের চাকায় ৩৮০ মিলিমিটার ডিস্ক ব্রেক ব্যবহার হয়েছে।

pulsarদুইটি ভেরিয়েন্টেই পিছনের চাকায় থাকছে ২৩০ মিলিমিটারের ডিস্ক ব্রেক। চাকা দুইটি ১৭ ইঞ্চির। সামনের চাকায় ১০০ সেকশন টায়ার ও পেছনের চাকায় ১৩০ সেকশন টায়ার ব্যবহার করেছে বাজাজ। 

এজেড