তেলের গাড়ির চেয়ে বেশি পরিবেশ দূষণ করে বৈদ্যুতিক গাড়ি!

অটোমোবাইল ডেস্ক
প্রকাশিত: ২২ জুন ২০২২, ১২:২৭ পিএম
তেলের গাড়ির চেয়ে বেশি পরিবেশ দূষণ করে বৈদ্যুতিক গাড়ি!

জ্বালানি তেল চালিত গাড়ির চেয়ে বৈদ্যুতিক গাড়ি বেশি পরিবেশবান্ধব। এতদিন সবাই এই কথাই শুনে আসছেন। কিন্তু নতুন গবেষণা বলছে কয়েক দশকের পুরনো ক্লাসিক ভিন্টেজ গাড়িগুলি ইলেকট্রিক গাড়ির তুলনায় কম ক্ষতিকর।

ফুটম্যান জেমসের একটি গবেষণায় দাবি করা হয়েছে যে বৈদ্যুতিক মডেল বা আধুনিক গাড়ির তুলনায় ক্লাসিক গাড়ি পরিবেশের উপরে কম প্রভাব ফেলে।
 
গবেষণায় জানা গেছে, আধুনিক গাড়ির তুলনায় ক্লাসিক গাড়ি কম ব্যবহৃত হয়। আধুনিক গাড়ি প্রতিদিন ব্যবহৃত হয়। ফলে পরিবেশ অত্যন্ত দূষিত হয়।

e carপুরনো ক্লাসিক গাড়িগুলিতে নিঃসন্দেহে আধুনিক গাড়ির থেকে অনেক বেশি ক্ষতিকর ধোঁয়া নির্গমন হয়। প্রতিটি দেশেই এখন নির্গমনের জন্য নির্দিষ্ট নিয়ম রয়েছে। তবে প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, আধুনিক যানবাহনের তুলনায় পুরনো ও ক্লাসিক গাড়ির ব্যবহার অনেক কম। ফলে দূষণ কম হয়।

ফুটম্যান জেমসের প্রকাশিত সমীক্ষায় জানানো হয়েছে ইউনাইটেড কিংডমে একটি ক্লাসিক গাড়ি প্রতি বছর গড়ে ৫৬২ কেজি সিওটু নির্গমন করে। যা একটি আধুনিক গাড়ির তুলনায় অনেকটাই কম। আধুনিক গাড়িগুলো বছর শেষে ক্লাসিক ভিন্টেজ গাড়ির তুলনায় অনেক বেশি দূরত্ব চলার কারণেই তাতে পরিবেশের উপর বেশি প্রভাব পড়ে।

e carগাড়ি প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠানগুলোর কার্বন নিরপেক্ষ গাড়ি তৈরি করতে এখনও এক দশক সময় লাগতে পারে। প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে যে প্রায় দুই-তৃতীয়াংশ ক্লাসিক গাড়ির মালিক জলবায়ু পরিবর্তন নিয়ে খুব উদ্বিগ্ন এবং তাদের অর্ধেকেরও বেশি নির্গমন-হ্রাস কারী প্রযুক্তি ব্যবহার করতে ইচ্ছুক।

যদিও আধুনিক যানবাহনে প্রতি কিলোমিটারে সিওটু নির্গমন অনেকটাই কম। তবে বেশি দূরত্ব চলার কারণে এই গাড়িগুলো পরিবেশের উপরে বেশি প্রভাব ফেলে। 

এজেড