বর্ষায় নিরাপদ বাইক ভ্রমণে মানুন এসব নিয়ম

অটোমোবাইল ডেস্ক
প্রকাশিত: ২১ জুন ২০২২, ০২:১০ পিএম
বর্ষায় নিরাপদ বাইক ভ্রমণে মানুন এসব নিয়ম

বর্ষাকালে ভেজা ও কর্দমাক্ত রাস্তায় বাইক চালানো বিপজ্জনক হয়ে উঠতে পারে। বিশেষ করে ভারি বৃষ্টির সময় মোটরসাইকেল চালালে দুর্ঘটনার সম্ভাবনা অনেকটা বেড়ে যায়। বর্ষার সময় বাইক ও স্কুটার আরোহীদের দুর্ঘটনার সম্ভাবনা সবথেকে বেশি। ছোট ভুলের কারণে বড় মাশুল দিতে হতে পারে। কিন্তু এই প্রতিকুল পরিস্থিতিতেও দুর্ঘটনার সম্ভাবনা কমতে পারে, মেনে চলতে হবে এই নিয়মগুলো।

গতি

বর্ষার সময় রাস্তায় পানি জমে গেলে টায়ারে গ্রিপ কমে যায়। তাই বেশি গতিতে মোটরসাইকেল চালালে দুর্ঘটনার সম্ভাবনা কয়েক গুণ বেড়ে যায়। এই কারণে বৃষ্টির সময় মোটরসাইকেল অথবা স্কুটার চালালে গতি নিয়ন্ত্রণে রাখুন। চেষ্টা করুন ঘণ্টায় ৪০ কিলোমিটারের চেয়েও কম গতিতে রাইড করতে।

bikeদাঁড়িয়ে যান

ভারি বৃষ্টিপাতের কারণে রাস্তায় পানি জমে গেলে আগেই দাঁড়িয়ে যান। অনেক সময় পানি নিচে বড় গর্ত থাকে যা দেখা যায় না। এই ধরনের গর্ত দুর্ঘটনার সম্ভাবনা বাড়ায়। এছাড়াও এক্সহস্ট পাইপে পানি ঢুকে যাওয়ার ভয় থাকে। যা আপনার মোটরসাইকেল বন্ধ করে দিতে পারে।

ফিঙ্গার ওয়াইপার

আজকাল অনলাইনে ও অফলাইনে পাওয়া যায় ফিঙ্গার ওয়াইপার। যা ব্যবহার করে খুব সহজে হেলমেটের কাঁচ থেকে জমা পানি সরিয়ে নিতে পারবেন। অল্প দামে এই প্রোডাক্ট কিনতে পারবেন। বৃষ্টির সময় রাস্তা ভালো ভাবে দেখতে না পেলে দুর্ঘটনার সম্ভাবনা বাড়ে।

bikeহেলমেট পরুন

কখনই হেলমেট ছাড়া বাইক, স্কুটার চালানো উচিত নয়। বর্ষার সময় কম দূরত্ব রাইড করলেও হেলমেট পরুন। হেলমেট পরা থাকলে আপনার চোখে উপর সরাসরি বৃষ্টির ফোঁটা পড়বে না। ফলে রাস্তা দেখতে সুবিধা হবে। এছাড়াও দুর্ঘটনার কবলে পড়লে আপনার জীবন রক্ষা করতে সাহায্য করবে হেলমেট। তাই শুরু বৃষ্টির সময় নয়, সব সময় সুরক্ষিত থাকতে হেলমেট পরেই রাইড করুন।

bikeদূরত্ব বজায় রাখুন

বৃষ্টির সময় ব্রেক ধরতে কিছুটা বেশ জায়গা লাগে। রাস্তায় গ্রিপ কমে যাওয়ার জন্য এই ঘটনা ঘটে। এই কারণে সামনের গাড়ি থেকে একটু বেশি দূরত্ব মেনে রাইড করুন। এছাড়াও দৃশ্যমানতা কম হওয়ার কারণে সামনের গাড়ি একটু বেশি দূরত্বে থাকলে দুর্ঘটনার সম্ভাবনা অনেকটা কমে যায়।

বর্ষাকালে এসব নিয়ম মেনে বাইক চালান। নিরাপদে থাকুন। 

এজেড