জলবায়ু ন্যায্যতার দাবিতে ধর্মঘট ও পদযাত্রা

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৯:৪৮ পিএম
জলবায়ু ন্যায্যতার দাবিতে ধর্মঘট ও পদযাত্রা

ফ্রাইডেস ফর ফিউচারের আহ্বানে বৈশ্বিক জলবায়ু ধর্মঘটে একাত্মতা প্রকাশ করে জলবায়ু ন্যায্যতার দাবিতে ধর্মঘট ও পদযাত্রা করেছে পরিবেশবাদী সংগঠন ইয়ুথনেট ফর ক্লাইমেট জাস্টিসের ফেনী ইউনিট।

শুক্রবার (২৩ সেপ্টেম্বর) বিকেলে ফেনীর ট্রাংক রোডে অর্ধশতাধিক জলবায়ু যোদ্ধারা ওই ধর্মঘট পালন করেন। এ সময় তারা নানা দাবি সম্বলিত প্ল্যাকার্ড হাতে নিয়ে বিভিন্ন স্লোগান দেন।

Climateএ সময় ইয়ুথনেট ফর ক্লাইমেট জাস্টিসের ফেনী জেলার সহ-সমন্বয়কারী জাহিদ হাসান বলেন, জলবায়ু পরিবর্তনের জন্য ধনী দেশগুলো দায়ী। অথচ বাংলাদেশসহ সারাবিশ্ব ক্ষতিগ্রস্ত ও গভীর সংকটে পড়েছে। তাদেরকেই নিতে হবে বাড়তি দায়িত্ব। সেই সঙ্গে দ্রুততম সময়ে প্রতিশ্রুতি দেওয়া অর্থ দিতে হবে।

জাহিদ হাসান বলেন, জলবায়ু সুবিচারের লক্ষ্যে উন্নত দেশগুলোকে জলবায়ু-ঝুঁকিপূর্ণ দেশগুলোকে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার যোগ্য পথ ও নকশা প্রণয়ন ছাড়াও সেগুলো দ্রুত বাস্তবায়ন এবং অধিকার ভিত্তিতে অভিযোজন তহবিল সরবরাহ করতে হবে।

এছাড়া জলবায়ুযোদ্ধা আশরাফ হোসেন বলেন, বৈশ্বিক তাপমাত্রা বৃদ্ধির হার ১ দশমিক ৫ ডিগ্রির মধ্যে রাখতে উন্নত দেশগুলোকে চাপ দেওয়া ছাড়াও কার্বন নিঃসরণ কমাতে জীবাশ্ম জ্বালানিনির্ভর বিদ্যুৎ উৎপাদনে বহুজাতিক প্রতিষ্ঠানগুলোর বিনিয়োগ বন্ধসহ জলবায়ু দূষণ থামানোর দাবি জানাচ্ছি। এ সময় তরুণদের ভবিষ্যতের সুরক্ষায় অনড় প্রজন্ম জলবায়ু সুবিচার প্রতিষ্ঠায় আন্তর্জাতিক আইনি বাধ্যবাধকতা প্রণয়ন করা এখন সময়ের দাবি বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

Climateইয়ুথনেটের ফেনী জেলার সহ-সমন্বয়কারী জাহিদ হাসানের সভাপতিত্বে ধর্মঘটে অন্যদের মধ্যে জলবায়ু যোদ্ধা ইমাম উদ্দিন আহম্মেদ ইমন, জাবের ইয়াকুব, সৈয়দা নুসরাত আনিকা, ফাহিম মুনতাসীর তন্নী প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

কিশোরী গ্রেটা থুনবার্গ জলবায়ু পরিবর্তনের প্রতিবাদ জানিয়েছে ২০১৮ সালের আগস্টে। এরই ধারাবাহিকতায় সুইডিশ পার্লামেন্টের বাইরে ‘স্কুল স্ট্রাইক ফর দ্য ক্লাইমেট’ লিখিত একটি প্ল্যাকার্ড হাতে প্রতি শুক্রবার অবস্থান কর্মসূচি শুরু করেন। পরে এই আন্দোলন নিয়ে তিনি বিভিন্ন প্লাটফর্মে কথা বলতে শুরু করেন। সেই সঙ্গে এর নামকরণ করেন ‘ফ্রাইডেস ফর ফিউচার’। সারাবিশ্বে শিশুদের মাঝে ছড়িয়ে পড়েছে এই আন্দোলন।

ডিএইচডি/আইএইচ